ছাত্রীকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ করা পল্লি চিকিৎসক গ্রেফতার

|

ঝিনাইদহের মহেশপুরে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ধর্ষণের অভিযোগে পল্লি চিকিৎসক সাইফুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
রোববার রাতে সেজিয়া বাজার থেকে সাইফুলের নিজ ঔষধের ফার্মেসী থেকে তাকে আটক করা হয়।

নির্যাতনের শিকার ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা জানায়, জ্বরের চিকিৎসা করাতে অভিযুক্ত সাইফুলের ফার্মেসিতে গেলে চেতনানাশক ইনজেকশন দিয়ে অজ্ঞান করে মেয়েটির ওপর নির্যাতন চালানো হয়।

মেয়েটির জ্ঞান ফিরলে বুঝতে পারে যে তার সাথে অমানবিক কিছু হয়েছে। তার প্রচুর পরিমান রক্তক্ষরণ হতে থাকে। মেয়েটি কোনমতে বাড়িতে পৌছিয়ে মায়ের কাছে সব খুলে বলে। মেয়ের এমন অবস্থা দেখে দ্রুত চুয়াডাঙ্গা হাসপাতালে নিয়ে যায়। মেয়েটি এখনও চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

ঘটনার পর মেয়েটির বাবা বাদি হয়ে মামলা করেন সাইফুলের বিরুদ্ধে। আজ তাকে আদালতে তোলার কথা রয়েছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply