অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ স্কোয়াডে স্মিথ-ওয়ার্নার, বাদ পড়লেন হ্যান্ডসকম্ব

|

বিশ্বকাপ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছেন অজি তারকা স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। বিশ্বকাপের জন্য অস্ট্রেলিয়ার ঘোষিত ১৫ সদস্যে স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন এক বছর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা দুই ব্যাটসম্যান। তবে তাদের জায়গা করে দিতে বাদ দেয়া হয়েছে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে দারুণ পারফরম করা পিটার হ্যান্ডসকম্বকে। একই সাথে ইনজুরির কারণে দলে জায়গা হয়নি নির্ভরযোগ্য পেইসার জশ হ্যাজলউডের।

বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা করে নেয়ার পাশাপাশি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ২০১৯-২০ সালে সেন্ট্রাল কনট্র্যাক্টের তালিকাতেও নাম উঠেছে স্মিথ-ওয়ার্নারের। সব ঠিক থাকলে ব্রিস্টলে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রত্যাবর্তন ঘটবে তাদের।

ইংলিশ কন্ডিশন বিবেচনায় ১৫ সদস্যের স্কোয়াডে ৫ জন পেইসার রাখা হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার গত ১৩টি ওয়ানডে ম্যাচে না খেললেও সরাসরি স্কোয়াডে ঢুকে গেছেন মিচেল স্টার্ক। তবে হ্যাজলউডের ভাগ্য অতোটা সুপ্রসন্ন নয়। পিঠের ইনজুরির কারণে জানুয়ারি থেকে মাঠের বাইরে তিনি। তার ফিটনেস নিয়ে সন্দেহ থাকায় ঝুঁকি নিতে চাননি নির্বাচকরা। কেননা বিশ্বকাপের পরেই শুরু হবে অ্যাশেজের লড়াই। সেখানে হ্যাজলউডকে বেশি প্রয়োজন।

স্টার্কের সাথে অবধারিতভাবে রয়েছেন প্যাট কামিন্স। কাঁধের ইনজুরি কাটিয়ে দলে জায়গা করে নিয়েছেন ঝাই রিচার্ডসন। আছেন ন্যাথার কুলটার নাইল ও জেসন বেহরেনডর্ফ। নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান ট্রেভর হর্নস অবশ্য জানিয়েছে, স্টার্ক ও রিচার্ডসনের দলে থাকা ফিটনেসের ওপর নির্ভরশীল। ২৩ মে’র আগে স্কোয়াডে পরিবর্তন হতেও পরে।

তবে অজি স্কোয়াডে সবচেয়ে বড় চমক হ্যান্ডসকম্বের বাদ পড়া। স্মিথ-ওয়ার্নারের প্রত্যাবর্তন মানেই, মিডল অর্ডার থেকে কাউকে জায়গা ছেড়ে দিতে হবে। সাম্প্রতিক ফর্ম ও ব্যাকআপ উইকেট কিপার হিসেবে কার্যকারিতা বিবেচনায় তার স্কোয়ডে থাকা একরকম নিশ্চিত বলেই ধরা হচ্ছিলো।

হ্যান্ডসকম্ব না থাকায় অস্ট্রেলিয়া স্কোয়াডে অ্যালেক্স ক্যারি-ই একমাত্র কিপার। প্রস্তুতি পর্ব কিংবা বিশ্বকাপ চলাকালে তিনি যদি ইনজুরিতে পড়েন, তবে বড় বিপদে পড়বে অস্ট্রেলিয়া।

অস্ট্রেলিয়ার ১৫ সদস্যের স্কোয়াড: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ, উসমান খাজা, শন মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কাস স্টয়নিস, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেট কিপার), প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, ঝাই রিচার্ডসন, ন্যাথান কুল্টার নাইল, জেসন বেহরেনডর্ফ, অ্যাডাম জাম্পা, ন্যাথান লায়ন।









Leave a reply