‘জাতিসংঘের বিবৃতি বাংলাদেশ-মিয়ানমার আলোচনাকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে’

|

Rohingya refugees stretch their hands to receive aid distributed by local organisations at Balukhali makeshift refugee camp in Cox's Bazar, Bangladesh, September 14, 2017. REUTERS/Danish Siddiqui

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতি ৬ লাখের অধিক রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে চলমান বাংলাদেশ-মিয়ানমার দ্বি-পাক্ষিক সংলাপকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে বলে উল্লেখ করেছে মিয়ানমার।

সোমবার, এক বিবৃতিতে মিয়ানমারের রাখাইনে সামরিকবাহিনীর অতিরিক্ত বল প্রয়োগ বন্ধে পদক্ষেপ নিতে জোর দিয়েছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। পাশাপাশি, মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টার অন সাং সু চি’র বরাতে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, মিয়ানমার ও বাংলাদেশ যে সমস্যা মোকাবেলা করছে তা কেবলামাত্র দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধান সম্ভব। বিষয়টি নিরাপত্তা পরিষদের বিবৃতিতে উপেক্ষিত হয়েছে বলে মনে করছে মিয়ানমার সরকার।

অধিকন্তু, নিরাপত্তা পরিষদের প্রেসিডেন্সিয়াল স্টেটমেন্ট দ্বিপাক্ষিক আলোচনা ও দরকষাকষিতে চরম নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে বলে সু চি’র অফিস থেকে পাঠানো বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশের সাথে দরকষাকষি একটি পর্যায়ে আছে বলে উল্লেখ করে মিয়ানমার জানিয়েছে, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীকে আগামী ১৬-১৭ নভেম্বর মিয়ামার সফরের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply