এবার প্রিন্স চার্লসের দুর্নীতির তথ্য ফাঁস

|

ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের পর এবার প্রিন্স চালর্সের দুর্নীতির তথ্য উন্মোচন করলো অনুসন্ধানী প্রতিবেদকদের সংগঠন- আইসিআইজে। তবে তার বিরুদ্ধে করফাঁকির অভিযোগ নয়, সংগঠনটির দাবি, নিজ কোম্পানির সুবিধার জন্য জলবায়ু চুক্তির পরিবর্তনের জন্য চেষ্টা চালান প্রিন্স চালর্স।

প্যারাডাইস পেপার্সের তথ্য অনুসারে, ২০০৭ সালে অফশোর বারমুডা কোম্পানিতে ১ লাখ ১৩ হাজার ডলার বিনিয়োগ করেন প্রিন্স অব ওয়েলস। এ কোম্পানির সাথে যুক্ত হওয়ার আগে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সরব হলেও, পরে এ ভূমিকা থেকে সরে আসেন তিনি। কেননা কিয়াটো প্রটোকল এবং ইইউ ইমিশন ট্রেডিং স্কিম অনুসারে এ ধরণের কোম্পানি পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর। অবশ্য এ কোম্পানির সাথে সরাসরি জড়িত থাকার তথ্য অস্বীকার করেন চালর্স। গেল রোববার, এক কোটি ৩৪ লাখ গোপন নথিসম্বলিত ‘প্যারাডাইস পেপার্স’ ফাঁস করে, আইসিআইজে। যেখানে, দুর্নীতি ও করফাঁকির সাথে জড়িয়ে নাম এসেছে ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথসহ ১২০ রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের।









Leave a reply