গাইবান্ধার সাঁওতালপল্লীতে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে সাঁওতাল পল্লীতে হামলা-বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ ও গুলি করে তিনজন সাঁওতাল হত্যা মামলার আসামি সাবেক এমপি আবুুল কালাম আজাদ ও ইউপি চেয়ারম্যান শাকিল আহমেদ বুলবুলসহ লুটপাটকারীদের গ্রেফতার এবং দ্রুত মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে সাঁওতালরা।

বুধবার (৪ এপ্রিল) দুপুরে সাঁওতাল নারী-পুরুষদের বিক্ষোভ মিছিল গাইবান্ধা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়া নারী-পুরুষরা পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) গাইবান্ধা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। এসময় পিবিআই কর্মকর্তার কাছে একটি স্মারক লিপি দেন তারা।

এরআগে, সাঁওতাল নারী-পুরুষরা বাসে করে গোবিন্দগঞ্জের মাদারপুর ও জয়পুরপাড়ার সাঁওতাল পল্লী থেকে গাইবান্ধা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আসেন। সেখান থেকে পায়ে হেটে বিক্ষোভ করেন তারা। বিক্ষোভে সাঁওতাল ছাড়াও বাঙালী এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলেরে নেতাকর্মীরাও যোগ দেন।

পিবিআই কার্যালয়ের সামনে অবস্থানের সময় বক্তব্য রাখেন, ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ফিলিমন বাক্সে, সাধারণ সম্পাদক জাফরুল ইসলাম প্রধান, আদিবাসি বাঙালী সংহতি পরিষদের আহবায়ক এ্যাড. সিরাজুল ইসলাম বাবু, সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য মিহির ঘোষ। পরে হামলাকারীদের গ্রেফতার ও মামলার তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিলে জন্য পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিকেশন (পিবিআই) বরাবরে একটি স্মারক লিপি দেন তারা।

এ বিষয়ে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) গাইবান্ধার সককারী পুলিশ সুপার মো. আব্দুল হাই মুঠোফোনে বলেন, ‘সাঁওতাল পল্লীতে হামলার মামলার তদন্ত গুরুত্ব সহকারে করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত হামলাকারী ২৫ জন আসামি গ্রেফতার, লুটপাট হওয়া মালামাল এবং আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। বর্তমানে মামলার তদন্ত কার্যক্রম শেষ পর্যায়ে। উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশ আগামি মাসের মধ্যেই আদালতে চার্জশিট দাখিলের চেষ্টা করা হবে। এছাড়া মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতার চেষ্টাও অব্যাহত রয়েছে’।

টিবিজেড/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply