ফোর্বস ম্যাগাজিনের ‘থার্টি আন্ডার থার্টি’ তালিকায় ২ বাংলাদেশি তরুণ

|

মার্কিন সাময়িকী ‘ফোর্বস’ ২০১৯ সালে সমাজে অবদান রাখায় অনূর্ধ্ব ৩০ বছর বয়সী ৩০০ জন তরুণের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। এ তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন দুই বাংলাদেশী তরুণ।

এদের মধ্যে কনজুমার টেকনোলজি ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন পেয়েছেন বাংলাদেশের অন্যতম রাইড শেয়ারিং সার্ভিস ‘পাঠাও’র সহ-প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন ইলিয়াস এবং মিডিয়া, মার্কেটিং অ্যান্ড অ্যাডভার্টাজিং ক্যাটাগরিতে মনোনয়ন পেয়েছে ‘হ্যাপিনেজ চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক কার্টুন এঁকে আন্তর্জাতিক খ্যাতি পাওয়া কার্টুনিস্ট আবদুল্লাহ আল মোরশেদ।

এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ২৩টি দেশ থেকে প্রায় দুই হাজার তরুণ এ তালিকায় মনোনয়ন পেয়েছিলেন। পরে বিচারক প্যানেলের মাধ্যমে বাছাই করে ৩শ’ জন সফল তরুণ উদ্যোক্তা নিয়ে ২০১৯ সালের ‘থার্টি আন্ডার থার্টি’ তালিকাটি প্রকাশ করেছে ফোর্বস এশিয়া।

এবারের তালিকায় সবচেয়ে বেশি স্থান দখল করে আছে চীনের উদ্যোক্তারা (৬১ জন), এরপরেই রয়েছে ভারত (৫৯ জন)।

পাঠাওয়ের সহ-প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন ইলিয়াস সম্পর্কে ফোর্বস লিখেছে, হুসেইন ইলিয়াস এবং শিফাত আদনান মিলে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন বাংলাদেশের প্রথম রাইড শেয়ারিং সার্ভিস পাঠাও। প্রথমে মোটরবাইক দিয়ে শুরু করে একে একে এটি পার্সেল সার্ভিস, কার রাইড, অন-ডিমান্ড লজিস্টিকস এবং ফুড ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে নিজেকে ছড়িয়ে দিতে থাকে।

কার্টুনিস্ট মোরশেদ মিশু সম্পর্কে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালের শুরুর দিকে কার্টুনিস্ট মোরশেদ মিশু বিশ্বজুড়ে চলমান ভয়াবহ বিভিন্ন যুদ্ধের ওপর কার্টুন বা ব্যঙ্গচিত্র তৈরি করতে শুরু করেন। যুদ্ধের মর্মান্তিক ও যন্ত্রণাদায়ক ছবিগুলো তার কলমের প্রতিভায় রূপ নিতে থাকে হাসি-আনন্দ ভরা শিল্পকর্মে। মিশু দেখানোর চেষ্টা করেছেন, যুদ্ধের নির্মমতা না থাকলে পৃথিবীটা কত সুন্দর হতো।

যমুনা অনলাইন/কিউএস


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply