ভগ্নিপতির চাপাতির কোপে শ্যালক খুন, স্ত্রী-শাশুড়ি আহত

|

গাজীপুর প্রতিনিধি
গাজীপুর মহানগরের দক্ষিণ সালনা এলাকায় ভগ্নিপতির চাপাতির কোপে শ্যালক নিহত এবং শাশুড়ি ও স্ত্রী আহত হয়েছেন। ঘটনার পর থেকে ঘাতক মুসা আলম (৪৫) পলাতক রয়েছে। নিহত আশিকুর রহমান (১৮), স্থানীয় জোলারপাড় এলাকার আল আমিনের ছেলে।

আহতরা হলো- মুসা আলমের শাশুড়ি আসমা বেগম এবং তার স্ত্রী আঞ্জুমনোয়রা বেগম।

গাজীপুর মহানগরের পোড়াবাড়ির র‌্যাব-১ ক্যাম্পের এএসআই আবু তালেব জানান, আঞ্জুমনোয়ারা দম্পতি সালনা এলাকায়  ভাড়া থাকেন। আঞ্জু স্থানীয় প্রীতি গ্রুপের সোয়েটার কারখানায় চাকরি করেন এবং স্বামী মুসা কাঁচা মালের ব্যবসায়ী। বিয়ের পর থেকেই আঞ্জু-মুসার পারিবারিক ও দাম্পত্য কলহ চলছিল। প্রতিমাসেই মুসা স্ত্রীকে তার বেতনের টাকা দিতে বলতো। কিন্তু স্ত্রী সবটাকা দিতে রাজি হত না। মঙ্গলবার এসব নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয় । এক পর্যায়ে আঞ্জুমনোয়ারাকে মুসা মারধর করলে তিনি তার মা-ভাইকে খবর দেন। পরে আঞ্জু মনোয়ারার মা আসমা ও তার ভাই আশিকুর ওই বাড়িতে যায়। ফেরার পথে দক্ষিণ সালনা পূর্বপাড়া এলাকায় পৌঁছলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে মুসা পেছন থেকে আশিকের ঘাড়ে চাপাতি দিয়ে কোপ দেয়। এসময় মা ও বোন এগিয়ে গেলে তাদেরও আঘাত করে মুসা পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী তাদের উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। পরে গুরুতর অবস্থায় আশিককে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

টিবিজেড/


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply