সন্ত্রাসী হামলাকারী যদি মুসলিম হতো…

|

মুসলিমের সন্ত্রাসী হামলার খবর, অমুসলিমের হামলার চেয়ে বেশি ফলাও করে প্রচার হয় বিশ্ব গণমাধ্যমে। সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, অমুসলিমের তুলনায় মুসলিম উগ্রবাদীর চালানো সন্ত্রাসী হামলার খবর ৩৫৭% বেশি গুরুত্ব পায় মার্কিন গণমাধ্যমে। খবর, ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের।

যুক্তরাষ্ট্রের আলাবামা বিশ্ববিদ্যালয়ের চালানো ওই গবেষণায় হামলার লক্ষ্য, জানমালের ক্ষয়ক্ষতি, ঘাতকের আটক হওয়ার বিষয়গুলো বিবেচনায় নেয়া হয়। ২০০৬ সাল থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে ঘটে যাওয়া সন্ত্রাসী হামলার তথ্য উপাত্ত নিয়ে গবেষণায় বলা হয়,

একজন অমুসলিমের সন্ত্রাসী হামলা গড়ে ১৫টি শিরোনামে জায়গা করে নেয়। অন্যদিকে, হামলাকারী যখন মুসলিম হয়, তখন সেই শিরোনামের সংখ্যা দাড়ায় ১০৫। অর্থাৎ সবাই সেই খবরটিকে লুফে নেয়।

 

২০০৮ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত মুসলিম উগ্রবাদীদের হামলার চেয়ে শ্বেতাঙ্গ কট্টর ডানপন্থি উগ্রবাদীর চালানো হামলার পরিমাণ কিন্তু কোন অংশেই কম নয়। তারপরও শিরোনামে জায়গা করে নেয়ার এই যে অসামঞ্জস্য, তা পশ্চিমা গণমাধ্যমের মুসলিম বিদ্বেষ ও শ্বেতাঙ্গদের প্রতি পক্ষপাতকেই স্পষ্ট করে।

গবেষণায় আরও বলা হয়, স্থানীয় ছোট গণমাধ্যমের তুলনায় জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গণজুড়ে বিস্তৃত গণমাধ্যমগুলোর মধ্যে এই পক্ষপাতদুষ্টতা আরও বেশি।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার ঘটনার পর আরও একবার সামনে এসেছে পশ্চিমা কিছু কিছু গণমাধ্যমের এই পক্ষপাতিত্ব। সব গণমাধ্যম কম বেশি এই নৃশংস হামলার খবর প্রচার করলেও, শব্দচয়নে ছিলো ভিন্নতা। মুসলিমরা হামলা চালালে যে শব্দগুলো ব্যবহার করা হয়ে থাকে, তার বেশিরভাগই অনুপস্থিত আল নূর মসজিদের ক্ষেত্রে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply