ডাকসু নির্বাচন বাতিলের দাবিতে আমরণ অনশনে ৬ শিক্ষার্থী

|

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদের নির্বাচন বাতিল করে পুনর্নির্বাচনের জন্য পুনঃ তফসিলের দাবিতে অনশনে বসেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থী। তাঁদের মধ্যে চারজন বিভিন্ন হল সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী ছিলেন। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে অনশন শুরু করেন তারা।

অনশনকারী প্রার্থীরা হলেন- ডাকসু নির্বাচনে শহীদুল্লাহ হল সংসদের সাহিত্য সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী শোয়েব মাহমুদ, মুহসিন হল সংসদের সংস্কৃতি সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী মো. মাঈন উদ্দিন, জগন্নাথ হল সংসদের সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী অনিন্দ্য মন্ডল, কেন্দ্রীয় সংসদের ছাত্র পরিবহন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী তাওহীদ তানজীম। এছাড়া ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রনি হোসেন। তিনি কোনো নির্বাচনে অংশ নেন নি।

পরে অনশনে এসে যোগদেন ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রনি হোসেন এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রাফিয়া তামান্না।

অনশনের সময় তাঁদের পাশে রাখা তিনটি প্ল্যাকার্ডে লেখা, ‘একটা ফেয়ার ইলেকশনের জন্য…’ ‘আমরণ অনশন…’ ও ‘শিক্ষকদের ভোট ডাকাতি এই লজ্জা কোথায় রাখি?

অনিন্দ্য মন্ডল বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি। আমরা নির্বাচনের জন্য পুনঃতফসিলের দাবিতে অনশন শুরু করেছি। একইসঙ্গে আমাদের দাবি নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তাদের পদত্যাগ করতে হবে।’

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমাদের আশ্বাস না দেওয়া পর্যন্ত আমাদের আমরণ অনশন চলবে বলেও জানান তিনি।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply