ডাকসু নির্বাচন: নির্বাচনের আগের রাতে ডাস চত্বরে লাঠিসোঁটা জমা

|

রাত পেরোলেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাকসু নির্বাচনের ভোট। এরমধ্যেই নির্বাচনের আগের রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির ডাস চত্বরের স্ন্যাকসের দোকানে লাঠিসোঁটা জমা করে রাখার খবরে উদ্বিগ্ন শিক্ষার্থীরা।

তবে কারা কী উদ্দেশ্যে এসব জমা করেছে সে সম্পর্কে স্পষ্ট করে জানা যায়নি কিছুই।

রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে কয়েকটি রিকশায় এসব লাঠিসোঁটা নিয়ে দোকানের ভেতরে জমা করে রাখে কে বা কারা। এই খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ শিক্ষার্থীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে তা নিয়ে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন মন্তব্য করছে।

ডাকসুর আচরণ বিধির ১৪ নম্বর ধারায় আছে, ‘নির্বাচনি প্রচারণা ও নির্বাচন চলাকালে বিস্ফোরক, দেশি অস্ত্র (লাঠিসোঁটা, রড, হকিস্টিক, ছুরি-কাঁচি) ও আগ্নেয়াস্ত্র বহন সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য বা অনুমোদিত ব্যক্তি ব্যতীত অন্য কেউ দেশি অস্ত্র বা আগ্নেয়াস্ত্র বহন করতে পারবেন না’।

এ  বিষয়ে দোকানের কর্মচারীদের জিজ্ঞাস করা হলে তারা জানান, একটি ছাত্রসংগঠনের সদস্যরা সেগুলো রেখে গেছেন। তবে কোন ছাত্র সংগঠন তা বলতে রাজি হননি তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী বলেন, ‘আমি লাঠিসোঁটা জমা করার খবর পেয়েছি। সেসব সরিয়ে নিতে সেখানে প্রক্টরিয়াল টিম পাঠাচ্ছি।’









Leave a reply