ডাকসু নির্বাচন: ভোটদান প্রক্রিয়া নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য

|

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের ভোটদান প্রক্রিয়া নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিয়েছেন হল প্রভোস্টরা। একপক্ষ বলছেন, বৈধ আইডি কার্ড না থাকলেও চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় নাম থাকলে শিক্ষার্থীরা ভোট দিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে ওই শিক্ষার্থীকে হলের বৈধতা প্রমাণ করতে হবে। আরেকটি পক্ষ বলছেন, চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় নাম আসলেই হবে না, ভোট দিতে হলে শিক্ষার্থীদের বৈধ আইডি কার্ড থাকতে হবে।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করে প্রশাসন। ৫ মার্চ প্রকাশ করা হয় সম্পূরক ভোটার তালিকা।

সূত্র জানায়, হলের বাইরে থাকা অধিকাংশ শিক্ষার্থী আইডি কার্ড নবায়ন করেননি। যার কারণে বৈধ শিক্ষার্থী হওয়ার পরও তাদের ভোট দেয়া নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। তবে তাদের কাছে ভর্তির পে-ইন স্লিপ আছে। কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, পে-ইন স্লিপ দিয়ে একজন শিক্ষার্থীর বৈধতা নির্ণয় করা যায়। এটা আইডি কার্ডের বিকল্প হিসেবে আমরা ব্যবহার করি। এছাড়া আমাদের নাম চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় এসেছে। বৈধ শিক্ষার্থী না হলেও তো আমাদের নাম আসতো না। তাই আমাদের দাবি, আইডি কার্ড না থাকলে পে-ইন স্লিপ দেখিয়েও যাতে ভোট দেয়া যায় সে ব্যবস্থা যেন থাকে।

এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. জিয়া রহমান জানান, আমরা চাই সব বৈধ শিক্ষার্থী ভোট দিক। চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় যাদের নাম আছে তারা যাতে ভোট দিতে পারে সে চেষ্টা করবো।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক মফিজুর রহমান এবং সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. দেলোয়ার হোসেনও একই কথা বলেন।

তবে এর পাল্টা বক্তব্য দেন বিজয় একাত্তর হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. এ জেড এম শফিউল আলম ভূইয়া, হাজী মুহাম্মদ মুহসীন হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক নিজামুল হক ভূইয়া, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. জাকিয়া পারভীন। তারা বলেন, আইডি কার্ড নবায়ন করা ছাড়া কেউ ভোট দিতে পারবে না।

আগামীকাল রোববার বিকাল পর্যন্ত আইডি কার্ড নবায়ন করা যাবে।

এদিকে প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক ড. এস এম মাহফুজুর রহমান বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে বলে দিয়েছি বৈধ আইডি কার্ড ছাড়া কেউ ভোট দিতে পারবে না। তবে হল প্রভোস্টরা চাইলে শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড ছাড়া অন্যকোনো বৈধ কাগজ দেখিয়েও ভোট দিতে পারবে।

যমুনা অনলাইন: এফএম









Leave a reply