ডাকসু নির্বাচন: ক্যাম্পাসে নিরাপত্তায় যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছে প্রশাসন

|

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ক্যাম্পাসে নিরাপত্তা জোরদার করছে প্রশাসন। আগামীকাল সন্ধ্যা ৬টা থেকে ক্যাম্পাসে মোতায়ান থাকবে বাড়তি পুলিশ। সেই সঙ্গে সাদা পোশাকের বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাও নিয়োজিত থাকবেন।

আজ শনিবার বিকালে এসব তথ্য জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. গোলাম রাব্বানী।

তিনি বলেন, আমরা সুষ্ঠুভাবে নির্বাচনের জন্য যা যা করা প্রয়োজন সেটাই করবো। কেউ যাতে পরিবেশ নষ্ট করতে না পারে সেজন্য বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেটা আগামীকাল সন্ধ্যা ৬টা থেকে কার্যকর হবে। পাশাপাশি ওই সময় থেকে পরেরদিন সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বহিরাগতদের চলাফেরা ও স্টিকারবিহীন গাড়ি চলতে পারবে না।

প্রক্টর আরো বলেন, ভোটার, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, তাদের পরিবারের সদস্য ও কর্তব্যরতরা ছাড়া ক্যাম্পাসের মধ্যে কেউ অবস্থান করতে পারবে না। এরকম কাউকে পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হলে যারা ভোটার না তারা থাকতে পারবেনা উল্লেখ করে অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী বলেন, হলগুলোতে শুধু ভোটাররাই থাকবে। হলের প্রভোস্ট, আবাসিক শিক্ষকরা সেটি নিশ্চিত করবেন। প্রয়োজনে অভিযানও চালানো হবে বলে জানান তিনি। ক্যাম্পাসে নিরাপত্তায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ১১৩টি ক্লোজড সার্কিট (সিসি) ক্যামরা থাকবে বলেও জানিয়েছেন প্রক্টর।

তিনি জানান, ক্যাম্পাসের ৭টি স্পটে তল্লাশী করবে পুলিশ। স্পটগুলো হলো- শাহবাগ, নীলক্ষেত, পলাশী, জগন্নাথ হল ক্রসিং, রুমানা ক্রসিং, শহিদুল্লাহ হল ক্রসিং ও হাইকোর্ট ক্রসিং। ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার চারজন ও প্রিন্ট মিডিয়ার একজন ক্যামেরাম্যান ও দুইজন সাংবাদিক ডিউটি পাস সাপেক্ষে ভেতরে প্রবেশ করতে পারবে বলে জানান প্রক্টর।

এর আগে, সকালে শাহবাগ থানায় ডাকসু নির্বাচনে নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া।

তিনি জানান, নির্বাচন উপলক্ষ্যে পুলিশ প্রস্তুত থাকবে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ নির্দেশ দিলেই তারা দায়িত্ব পালন করবে। হলে হলে ভোট কেন্দ্র হবে, প্রত্যেকটি ভোটকেন্দ্র সিসিটিভির আওতায় আনা হয়েছে। আর্চওয়ে মেটাল ডিটেক্টর থাকবে, এসবে তল্লাশি করে ভেতরে প্রবেশ করানো হবে। শিক্ষক, প্রক্টরিয়াল বডি ও বিএনসিসি নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবে।

উল্লেখ্য, প্রায় ২৯ বছর পর ১১ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

যমুনা অনলাইন: এফএম









Leave a reply