ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে রফতানি আয়

|

চলতি অর্থবছরের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশের পণ্য রফতানি আয় ৩শ ৩৮ কোটি ডলার। যা মাসভিত্তিক রফতানি লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৭ ভাগ এবং গতবছরের একই সময়ের তুলনায় ১০ দশমিক ১২ ভাগ বেশি। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে আয়ের পরিমান ছিল ৩শ ৭ কোটি ডলার। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো বাংলাদেশ-ইপিবি এসব তথ্য জানিয়েছে।

শুধু ফেব্রুয়ারি মাসই নয়, অর্থবছরের প্রথম আট মাসেই অত্যন্ত ইতিবাচক ধারায় আছে দেশে রফতানি খাত। চলতি অর্থবছরে মোট রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ৩৯ বিলিয়ন ডলার বা ৩ হাজার ৯’শ কোটি ডলার। এর মধ্যে জুলাই থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আট মাসে ২ হাজার ৫৫৭ কোটি ডলার লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আয় হয়েছে ২ হাজার ৭৫৬ কোটি ডলার। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ের প্রায় আট ভাগ এবং গতবছরের তুলনায় প্রায় ১৩ ভাগ প্রবৃদ্ধি।

দেশের সিংহভাগ রফতানি আয়ের যোগানদাতা পোশাক খাতের প্রবৃদ্ধির উপর ভর করেই এবছরেও বাড়ছে রফতানি আয়। পোশাকের দুই খাতে রফতানির গড় প্রবৃদ্ধি ১৪ ভাগের বেশি। আর মোট আয় ২ হাজার ৩১৩ কোটি ডলার। যেখানে ওভেন পণ্য থেকে আয় ১ হাজার ১৬৩ কোটি ডলার এবং নীটওয়ার পণ্য থেকে রফতানি আয় ১ হাজার ১৪৯ কোটি ডলার। তবে হোম টেক্সটাইল খাতে রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয় নি। একইভাবে নেতিবাচক ধারায় রয়েছে চামড়া ও চামড়াজাত এবং পাট ও পাটজাত পণ্য খাত।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply