লিটন নন্দীর প্রচারণায় বাদ্যযন্ত্র ব্যবহার, আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ ছাত্রলীগের

|

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে বাম জোটের ভিপি প্রার্থী ও ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি লিটন নন্দীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। আজ দুপুরে প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক মাহফুজুর রহমানের কাছে ছাত্রলীগ সমর্থিত সম্মিলিত শিক্ষার্থী পরিষদের চেয়ারম্যান সনজিত চন্দ্র দাস এ অভিযোগ করেন। লিটন নন্দী প্রচারণায় বাদ্যযন্ত্র ব্যবহার করেছেন বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়।

নির্বাচনের আচরণবিধি ৩(ক) ধারায় বলা আছে, কোনো প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী বা তার পক্ষে মনোনয়নপত্র জমাদান, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার বা নির্বাচনী প্রচারণায় কোনো ধরনের যানবাহন, মোটরসাইকেল, রিকশা, ঘোড়ার গাড়ি, হাতি, ব্যান্ড পার্টি ইত্যাদি নিয়ে কোনোরূপ শোভাযাত্রা, শোডাউন বা মিছিল করা যাবে না।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে ক্যাম্পাসে প্রচারণা শুরু করেন লিটন নন্দীর নেতৃত্বে বাম জোট। প্রচারণার সময় কর্মীদের ড্রাম বাজিয়ে গান করতে দেখা যায়। এসময় তারা পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।

অভিযোগের বিষয়ে লিটন নন্দী বলেন, আমাদের প্রচারণায় কোনো ব্যান্ড পার্টি ছিলো না। সংগঠনের এক কর্মী প্যারেড ড্রাম বাজিয়েছিলো। বাকিরা নিজস্ব গান গেয়ে ভোট চেয়েছে। এটা আচরণবিধি লঙ্ঘন করে না বলে দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান বলেন, অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এর আগে, ছাত্রলীগের সভাপতি ও সম্মিলিত শিক্ষার্থী পরিষদের ভিপি প্রার্থী রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের বিরুদ্ধেও আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছিলো। তিনি রঙিন পোস্টার ছাপিয়ে ভোট চেয়েছিলেন।









Leave a reply