ইসরাইলি সেনার গুলিতে ফিলিস্তিনি কিশোর নিহত

|

গাজায় ফিলিস্তিনিদের সাপ্তাহিক কর্মসূচিতে আবারও আগ্রাসন চালিয়েছে ইসরায়েল। শুক্রবার ‘গ্রেট মার্চ ফর রিটার্ন’ কর্মসূচিতে চালানো হামলায় প্রাণ গেছে এক ফিলিস্তিনি কিশোরের।

শুক্রবার সাপ্তাহিক বিক্ষোভে যোগ দিতে গাজা সীমান্তে জড়ো হয় কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি। ইসরায়েল বিরোধী শ্লোগান দিতে থাকে তারা। টায়ারে আগুন ধরিয়ে প্রতিবাদ জানায় আন্দোলনকারীরা। ইসরায়েলি সেনা ঘাঁটি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেলও ছোড়ে তারা।

ইসরায়েলি সেনাদের অভিযোগ, তাদের উদ্দেশে গ্রেনেড ও বিস্ফোরক ছুড়ে মারে বিক্ষোভকারীরা। আন্দোলন নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা নেয়া হয় বলে দাবি, তেল আবিবের।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, এসময় ইসরায়েলে সেনাদের ছোড়া গুলিতে নিহত হয় ১৫ বছর বয়সী ওই কিশোর। আহত হয় আরও ৪০ জন।

২০১৮ সালের মার্চ থেকে ইসরাইলের দখল করে নিয়ে যাওয়া নিজেদের বসতবাড়িতে ফিরে যাওয়ার অধিকার দাবিতে প্রতি শুক্রবার গাজায় বিক্ষোভ করা হচ্ছে।

১৯৪৮ সালে অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল প্রতিষ্ঠার সময় এসব মানুষকে তাদের বসতভিটা থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছিল। গাজায় গত এক দশকের অবরোধ উঠিয়ে নেয়ারও দাবি করে আসছেন বিক্ষোভকারীরা।

নিরস্ত্র মানুষদের এ বিক্ষোভে ইসরাইলের স্নাইপারদের গুলিতে এ পর্যন্ত ২৫১ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।









Leave a reply