দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষে দেশে ফিরেছে ক্রিকেট দল

|

দেড় মাসের দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। জয়হীন ব্যর্থ এই সফরকে টাইগারদের জন্য শিক্ষণীয় বলেছেন- দলের ম্যানেজার মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। তাঁর দাবি সিরিজের প্রথম টেস্ট ড্র করার সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার হতাশা আর কাটিয়ে উঠতে পারেনি টাইগাররা। বিদেশের মাটিতে ভাল খেলার ‘চল’ তৈরি করতে, প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে পেসারদের আরও বেশি বল করার অভ্যাসের ওপর জোর দেন- তিনি। সেইসঙ্গে জাতীয় দলের আগে ঐ নির্দিষ্ট দেশে ‘এ’ দলের সফরের কথাও বলেন মিনহাজুল।

বিদেশের মাটি থেকে খুব কম ফেরায়ই আনন্দদায়ক হয় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য। তবে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষে এই ফেরাটা একটু বিষাদময়, একটু বেশি ক্লান্তির, আর একটু বেশি হতাশার। পরিচিত এই মুখগুলোর এমন অভিব্যক্তি তাই প্রত্যাশিতই ছিল।

সিরিজের শুরু হয়েছিল পচেফস্ট্রুম টেস্ট দিয়ে। শেষদিনে টেস্ট ড্র করার জন্য হাতে ৭টি উইকেট ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু, সেই লড়াইটা সাফল্যের সাথে শেষ করতে পারেনি টাইগাররা। ৩৩৩ রানের পরাজয়ে শুরু হয় সিরিজের যাত্রা। আর এখানেই মোমেন্টাম হারিয়ে বসে টাইগাররা। যার প্রতিচ্ছবি ফুটে ওঠে সিরিজের প্রতিটি ম্যাচে। দেশে ফিরে পচেফস্ট্রুম টেস্ট ড্র করতে না পারাকেই সামনে নিয়ে এলেন দলীয় ম্যানেজার ও প্রধান নিবার্চক মিনহাজুল আবেদীন।

একটা নতুন বুদ্ধিও খেলে গেলো মিনহাজুলের কন্ঠে। তার মতে এমন বিপর্যয় রোধ করতে পারে, জাতীয় দলের আগে ঐ নির্দিষ্ট দেশে ‘এ’ দলের সিরিজ খেলা। জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক কথা বললেন নির্বিষ বোলিং নিয়েও। তাঁর মত, ফাস্ট বোলারদের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে প্রচুর বল করার সুযোগ করে দিতে হবে এখন থেকে।

তবে এই একটি সিরিজ দিয়ে যেন মুশফিক-সাকিবদের সামর্থ্যের যাচাই না করা হয় সেটিও মনে করিয়ে দিলেন মিনহাজুল। কারণ সবশেষ সিরিজের আগে টানা দু’বছর বিশ্বকে চমকে দেয়া ক্রিকেটই খেলে এসেছে এই টাইগাররা।

যমুনা অনলাইন/এইচকেএফ

 


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply