৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু

|

গাজীপুর প্রতিনিধি:

শুক্রবার ভোর থেকে টঙ্গীতে শুরু হওয়ার কথা ছিলো বিশ্ব ইজতেমা। কিন্তু বৃহস্পতিবার আজরের নামাজের পর ইজতেমার র্শীষ মুরুব্বিদের পরামর্শ অনুযায়ী আমবয়ান শুরু করেন হুজুররা। প্রথমে পাকিস্তানের মাওলানা মো. খোরশিদ উর্দুতে বয়ান করেন। আবার বাংলায় অনুবাদ করেন মাওলানা মো. দেলোয়ার হোসেন।

এ উপলক্ষে ইজতেমা ময়দানে জড়ো হয়েছেন লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। ফলে ইজতেমা ময়দান বিশ্ব মুসলিমদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে। এ বছর দুই দফায় ১৬ এবং ১৮ ফেব্রুয়ারি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে ইজতেমার সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে।

বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে মুসল্লিদের নিরাপদ ভ্রমণ নিশ্চিতকরণ, সার্বিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে টঙ্গী আইনশৃংখলা বাহিনীর বিপুল পরিমাণ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ, র‌্যাব, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা, আনসার-ভিডিপি, ফায়ার সার্ভিসসহ সবাইকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। বিদেশী মেহমানদের নিরাপত্তায় আইনশৃংখলা বাহিনীর বিশেষ ব্যবস্থা হাতে নিয়েছে। অফিসারসহ প্রয়োজনীয় সংখ্যক ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে।

ইজতেমা মাঠে বিনামূল্য চিকিৎসা সেবা প্রদানের ব্যবস্থ গ্রহণ করেছে দেশের ওষুধ প্রস্তুতকারি প্রতিষ্ঠান হামদর্দ ল্যাবরেটরীজ (ওয়াক্ফ) বাংলাদেশ ও ফ্রি মেডিকেল সেন্টার ইসলামিক মিশন। এর উদ্বোধন করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ ও যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মেট্রোপলিটনের পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান, র‌্যাব-১ এর কম্পানি কমান্ডার আব্দুল-আল মামুন।

বিশ্ব ইজতেমার মিডিয়া সমন্বয়কারী মো. জহির ইবনে মুসলিমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বৃহস্পতিবার বাদ আছরের পর থেকে শুরু হয়েছে তাবলিগ জামাত আয়োজিত মুসলিম উম্মাহর দ্বিতীয় বৃহত্তম সমাবেশ ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমা। এবারের বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে দেশ-বিদেশের লাখ লাখ মুসল্লিরা ইতোমধ্যে ময়দানে অবস্থান নিয়েছেন। এছাড়া ৮৫ রাষ্ট্রের ৯০০ শতাধিক বিদেশী মুসল্লি অংশগ্রহণ করেছেন।

বিদেশীদের আগমন অব্যাহত রয়েছে। ১৫ ফেব্রুয়ারী থেকে টানা ৪ দিন ব্যাপী ইজতেমা শুরু হলেও দু’ধাপে দু’পক্ষের নেতৃত্ব থাকছে। প্রথম দুই দিনের নেতৃত্বে থাকবেন জোবায়েরপন্থী অনুসারী তাবলীগ মুসল্লীদের দল। পরবর্তী দু’দিনে থাকবেন সা’দ পন্থী ওয়াসেফুল ইসলামের অনুসারী তাবলীগ মুসল্লীরা। দু’গ্রুপেরই আলাদাভাবে থাকছে আখেরি মোনাজাতের অনুষ্ঠান। প্রথম পক্ষের আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে শনিবার এবং দ্বিতীয় পক্ষের আখেরি মোনাজাত সোমবার।









Leave a reply