তৃতীয় ধাপে ১২৭ উপজেলায় ভোট ২৪ মার্চ

|

তৃতীয় ধাপে দেশের ১২৭টি উপজেলায় আগামী ২৪ মার্চ ভোটগ্রহণের দিন নির্ধারণ করে তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবার এ তফসিল ঘোষণা করা হয়।

তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৬ ফেব্রুয়ারি, যাচাই-বাছাই ২৮ ফেব্রুয়ারি ও মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ৭ মার্চ নির্ধারণ করা হয়েছে।

রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের ২৫টি জেলায় এ ১২৭টি উপজেলা অবস্থিত। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে সর্বোচ্চ ৮টি, খুলনায় ৭টি, চট্টগ্রামে ৪টি ও বরিশাল বিভাগের ৩টি জেলার উপজেলাগুলোতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এ ছাড়া রাজশাহী, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগের একটি করে জেলার উপজেলাগুলোতে নির্বাচন হবে এ ধাপে।

এর আগে নির্বাচন কমিশন প্রথম ধাপে ৮৭টি উপজেলার নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছিল। আইনগত জটিলতার কারণে ওই ধাপের রাজশাহীর পবা উপজেলা নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় ৮৬টিতে নির্বাচন হচ্ছে।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় ধাপে ১২৯টি উপজেলার নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর গোপালগঞ্জের ৫টি উপজেলার নির্বাচন সরিয়ে তৃতীয় ধাপে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ফলে দ্বিতীয় ধাপে ১২৪টি উপজেলার ভোট হবে। এখন তৃতীয় ধাপের ১২৭টিসহ সব মিলিয়ে ৩৩৭টি উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হলো। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, উপজেলা নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার সংক্রান্ত বিধিমালার সংশোধন প্রক্রিয়া এখনো শেষ হয়নি। ফলে প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে এ মেশিন ব্যবহার করা সম্ভব হচ্ছে না। দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিষয়ে ইসি এখনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

এদিকে প্রথম ধাপের নির্বাচনে তফসিল ঘোষণার পর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগসহ কয়েকটি রাজনৈতিক দল প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

অপরদিকে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এ নির্বাচনে অংশ নেবে না বলে জানিয়েছে।

ইসি সূত্র জানায়, এবার পাঁচ ধাপে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে মার্চ মাসেই হবে চার ধাপের নির্বাচন।

বৃহস্পতিবার ইসি সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। এ সময় এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, অন্য সব স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের সদস্য হলে পদত্যাগ করে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে হবে।

উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত ভাইস চেয়ারম্যানরা প্রার্থী হতে হলে পদত্যাগ করতে হবে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, এ বিষয়ে কমিশন এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

তবে গত ৩ ফেব্রুয়ারি ইসি সচিব জানিয়েছিলেন- নির্বাচন করতে হলে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদেরও পদত্যাগ করতে হবে।

নির্বাচন কমিশন সচিব বলেন, আইন অনুযায়ী ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রতীকে ভোট হবে। আমরা যতটুকু জেনেছি, আওয়ামী লীগ ভাইস চেয়ারম্যান পদে কাউকে মনোনয়ন দেবে না। এটা উন্মুক্ত রাখবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, এ নির্বাচনে অংশ না নেয়ার বিষয়টি বিএনপি ইসিকে কিছু জানায়নি।









Leave a reply