মার্কেট ভাঙতে পৌরসভার ময়লা থেরাপি!

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর সুপার মার্কেট ভবন ভেঙে ফেলার জন্য নতুন কৌশল অবলম্বন করেছে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে মার্কেটের সামনের ময়লা ফেলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে পৌরসভা।

শুক্রবার সাপ্তাহিক বন্ধ থাকলেও কিছু ওষুধ ও কনফেকশনারি দোকান খোলা থাকায় বিপাকে পড়েছেন দোকানী ও ক্রেতা সাধারণ। বিষয়টিকে অমানবিক উল্লেখ করে দ্রুত সময়ের মধ্যে ময়লার স্তূপ সরানোর দাবি জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরশহরের কোর্ট রোডস্থ পৌর সুপার মার্কেটের একতলা বিশিষ্ট ভবনটি ব্যবহার অনুপযোগী ঘোষণা করে সেটি ভেঙে নতুন বহুতল ভবন করতে চায় পৌরসভা কর্তৃপক্ষ। মার্কেটটিতে বর্তমানে ছোট-বড় মিলিয়ে ১২০টির মতো দোকান রয়েছে। পৌরসভা কর্তৃপক্ষ তাদের মালিকানাধীন এ ভবনটি ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয়ার পরই মূলত মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সাথে দ্বন্দ্ব বাধে। মার্কেট বাঁচাতে আদালতের দ্বারস্থ হন ব্যবসায়ীরা। কয়েক বছর ধরেই উভয় পক্ষের মধ্যে মামলা-মোকদ্দমা চলছে। গত দুইদিন আগে হুট করে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ মাইকিং করে ব্যবসায়ীদের মার্কেট ছাড়তে বলে।

মার্কেটের কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, বিকল্প কোনো ব্যবস্থা না করেই মার্কেট ছাড়তে বলা হচ্ছে। প্রতিটি দোকানের সাথে তিন-চারটি করে পরিবার যুক্ত। দোকান না থাকলে এ পরিবারগুলো কিভাবে চলবে? রাতের আধারে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ সব ময়লা এনে মার্কেটের সামনে জড়ো করেছে। মার্কেট ভাঙতে পৌরসভা কর্তপক্ষের এই কৌশল খুবই অমানবিক।

তবে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ইচ্ছাকৃতভাবে ময়লা ফেলে ব্যবসায়ীদের মার্কেট থেকে বিতাড়িত করার অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

এদিকে, ব্যবসায়ীদের অভিযোগ অস্বীকার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার সচিব আবুজর গিফারী বলেন, মার্কেটের সামনে ময়লার গাড়ি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় সেখানেই ডাম্পিং করা হয়েছে। আজকের মধ্যেই সব ময়লা পরিস্কার হয়ে যাবে।









Leave a reply