লক্ষ্মীপুরে পাখির বাসা দেখাতে নিয়ে শিশু ধর্ষণ, ১২ দিন পর মামলা

|

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:
লক্ষ্মীপুরে পাখির বাসা দেখাতে নিয়ে সাত বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার ১২ দিন পর গতকাল মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ওই শিশুর মা বাদী হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এর আগে গত শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার কুশাখালি ইউনিয়নের ছিলাদী গ্রামে শিশুটিকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন পরিবার।

মামলায় ওই গ্রামের সাইফুল ইসলাম হারুনের ছেলে ফজলে রাব্বি (১৮) কে আসামি করা হয়। শিশুটি স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিশু শ্রেণির ছাত্রী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিন ছিলাদী গ্রামে ভিকটিম শিশুটি তার বাড়ীর পাশে সহপাঠীদের সাথে খেলাধুলা করছিল। এসময় ওই গ্রামের বখাটে যুবক ফজলে রাব্বি শিশুটিকে পাখির বাসা থেকে বাচ্চা নিয়ে দেওয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে স্থানীয় রফিক মেম্বারের বাড়ির পার্শ্ববর্তী কালভার্টের নিচে নিয়ে শিশুটিকে রাব্বি ধর্ষণ করে।

পরে ভিকটিম শিশুটিকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে নোয়াখালীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে, এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে স্থানীয় প্রভাবশালীরা তৎপরতা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ধর্ষক পলাতক রয়েছে বলে জানা যায়।

দাসেরহাট পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. মফিজ উদ্দিন শিশু ধর্ষণের ঘটনা ও মামলার বিষয়টি স্বীকার করে অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান।

যমুনা অনলাইন: আরএম/আকবি









Leave a reply