গ্রন্থমেলায় মোজাফফর হোসেনের দুটি বই

|

অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৯-এ প্রকাশিত হয়েছে ছোটগল্পের শিল্প, শৈলী ও রূপান্তর বিষয়ক মোজাফফর হোসেনের ‘পাঠে বিশ্লেষণে বিশ্বগল্প’ গ্রন্থ। বইটি প্রকাশ করেছে পাঞ্জেরী প্রকাশনী। এছাড়াও লেখকের গ্রন্থ কুটির থেকে প্রকাশিত হয়েছে ‘বাংলা সাহিত্যের নানাদিক’নামে আরেকটি বই।
‘পাঠে বিশ্লেষণে বিশ্বগল্প’ গ্রন্থে ২৬টির মতো গল্প পাঠসহ উপস্থাপন করা হয়েছে। বিশ্বসাহিত্যে ছোটগল্পের আঙ্গিক, উপস্থাপনা ও বিষয়বৈচিত্র্যের বাকবদল বোঝার জন্য পাঠকের কাছে বিশেষ কাজে দেবে। গ্রন্থটির লেখক মোজাফফর হোসেন নতুন প্রজন্মের গল্পকার, সাহিত্য-সমালোচক ও অনুবাদক হিসেবে সমাদৃত হয়ে উঠেছেন। তাঁর এই তিন পরিচয়েরই সাক্ষাৎ মিলবে বর্তমান গ্রন্থে। বইটির প্রচ্ছদ এঁকেছেন ধ্রুব এষ। ৪৮০ পৃষ্ঠাসংবলিত বইয়ের মূল্য রাখা হয়েছে ৭৫০টাকা।

বাংলাদেশের সমালোচনা সাহিত্যে তরুণ প্রাবন্ধিক, গল্পকার ও অনুবাদক মোজাফ্ফর হোসেন ইতোমধ্যে স্বকীয়তার ছাপ রাখতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি বিশ্বসাহিত্যের সর্বাধুনিক ধারা ও প্রবণতার সঙ্গে মিলিয়ে বাংলা সাহিত্যকে পাঠ ও বিশ্লেষণ করে যাচ্ছেন। তুলনা ও প্রতিতুলনার ভেতর দিয়ে একজন লেখক বা একটি গ্রন্থকে উপস্থাপন করেন; ফলে পাঠক সাহিত্যের বিচিত্র প্রসঙ্গ সম্পর্কে জানতে পারেন। ‘বাংলা সাহিত্যের নানাদিক’ গ্রন্থভুক্ত প্রবন্ধগুলো প্রকাশিত হয়েছে ‘কালি ও কলম’, ‘উত্তরাধিকার’, ‘শব্দঘর’ ও ‘দৈনিক প্রথম আলো’-সহ দেশের মানসচেতন পত্র-পত্রিকাতে। এখানে মোজাফ্ফর বাংলা সাহিত্যের বিচিত্র বিষয় নিয়ে যেমন লিখেছেন, তেমন আলো ফেলেছেন অনালোচিত নানা অধ্যায়ে।
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নিয়ে বাংলা সাহিত্যে সবচেয়ে বেশি লেখালেখি-গবেষণা হয়েছে। মোজাফ্ফর বইয়ের শুরুতে ‘রবীন্দ্রনাথ’ পাঠককে নতুন কিছু বিষয়ের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছেন। ‘বিশ্বে রবীন্দ্রচর্চা: গ্রহণ ও বর্জন’ শিরোনামে চমৎকার একটি গদ্য আছে। রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে পৃথক পৃথক গদ্যে ডেরেক ওয়ালকোট, মারজরি কিনান রলিংস ও বব ডিলানের তুলনামূলক আলোচনা করা হয়েছে। নারীমুক্তির প্রশ্নে রবীন্দ্রনাথ ও রবীন্দ্রজীবনে মৃত্যু নিয়ে আলাদা দুটি গদ্য আছে।
‘উপন্যাস’ অংশে সৈয়দ শামসুল হক, সেলিনা হোসেন, দিলারা হাশেম, ইমদাদুল হক মিলন ও আনিসুল হকের উপন্যাস ধরে আলোচনা করা হয়েছে। শিশুসাহিত্য নিয়ে বাংলাদেশে খুব বেশি লেখাজোখা হয় না। ‘শিশুসাহিত্য’ অংশে প্রাবন্ধিক বাংলাদেশের কয়েকজন খ্যাতিমান লেখক, যাঁরা মূলত বড়দের লেখক হিসেবে পরিচিত, তাঁদের শিশুসাহিত্যের প্রকৃতি ও প্রবণতা নিয়ে আলোচনা করেছেন। হাসান আজিজুল হক, শওকত আলী, মাহমুদুল হক ও সেলিনা হোসেনের শিশুসাহিত্য নিয়ে এই অংশে চারটি গদ্য আছে।
‘অন্যান্য’ শিরোনামে বইয়ের শেষ অংশে বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী এবং হাসান আজিজুল হকের স্মৃতিকথা নিয়ে দুটি গদ্য আছে। বাংলাদেশের ছোটকাগজ চর্চার ইতিহাস ও প্রেক্ষাপট এবং অধ্যাপক খান সারওয়ার মুরশীদ সম্পাদিত ‘নিউ ভ্যালুজ’ পত্রিকা নিয়ে বিশদাকারে আলোচনা করা হয়েছে দুটি গদ্যে। এই অংশে উল্লেখযোগ্য সংযোজন হলো ‘ভাষার ব্যবহার ও গালি’ এবং ‘বিশ্বখ্যাত লেখকদের বিচিত্র অভ্যাস ও রসাত্মক কাহিনি’ শীর্ষক গদ্যদুটি।

‘বাংলা সাহিত্যের নানাদিক’ বইয়ের প্রচ্ছদ করেছেন নির্ঝর নৈঃশব্দ্য, ১৭৬ পৃষ্ঠার বইটির মূল্য রাখা হয়েছে ৩২০টাকা।









Leave a reply