জামালপুরে ভুল প্রশ্নে ৭ শতাধিক শিক্ষার্থীর এসএসসি পরীক্ষা গ্রহণ

|

??????????????????????

স্টাফ রিপোর্টার,জামালপুর:

জামালপুরের বিভিন্ন কেন্দ্রে এসএসসির নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের ২০১৯ সালের প্রশ্নের পরিবর্তে ২০১৮ সালের সিলেবাসের প্রশ্নপত্র সরবরাহ করা হয়েছে। এসএসসির নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের ২০১৮ সালের অনিয়মিত প্রশ্নে পরীক্ষা গ্রহণ করায় বিক্ষোভ করেছে পরীক্ষার্থীরা। এসময় এই পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

সরেজমিনে খোজ নিয়ে জানা যায়, জামালপুর সদর উপজেলার কেন্দুয়ায় বাংলাদেশ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র সহ কয়েকটি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের প্রথমে ২০১৮ সালের অনিয়মিত প্রশ্ন পত্র দেয়া হয়। ২০ মিনিট পর তা পাল্টিয়ে ২০১৯ সালের নিয়মিত প্রশ্ন দেয়া হয়। এতে বিপাকে পড়ে ২১৩ জন পরীক্ষার্থী। পরীক্ষা শেষে তারা বিক্ষোভ করে।

একই ঘটনা ঘটে জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলার উলফাতুন্নেছা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে। এই কেন্দ্রের ২৯৫ জন পরীক্ষার্থী ২০১৮ সালের অনিয়মিত প্রশ্নে পরীক্ষা দেয়। পরীক্ষা শেষে এখানেও পরীক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করে। এসময় পরীক্ষার্থীরা এই পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানান। এই উপজেলায় অনিয়মিত প্রশ্নে পরীক্ষা দেয়া পরীক্ষার্থীর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানালেন বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেওয়ান মোঃ তাজুল ইসলাম।

এছাড়াও ইসলামপুর উপজেলার সরকারি নেকজাহান পাইলট মডেল হাই স্কুল কেন্দ্রে ২০০ জন শিক্ষার্থীকে ২০১৯ সালের পরিবর্তে ২০১৮ সালের প্রশ্ন দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইসলামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মিজানুর রহমান। এই কেন্দ্রে পরবর্তীতে সঠিক প্রশ্নে পরীক্ষা নেয়া হয়নি বলেও অভিযোগ অভিভাবকদের।

অনিয়মিত প্রশ্নে পরীক্ষার নেয়ার বিষয়ে জামালপুরের জেলা প্রশাসক আহমেদ কবির বলেন, বিষয়টি বোর্ড কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। যে প্রশ্নে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে সেই ভাবেই পরীক্ষার মুল্যায়ন করা হবে এবং এর জন্য যারা দায়ী তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এবার জামালপুরে এসএসসি, ভোকেশনাল ও দাখিল পরীক্ষায় ৩৯ হাজার ৯শ’ ২৭ জন নিয়মিত ও অনিয়মিত পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে।









Leave a reply