রাজবাড়ীতে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ছাত্রীকে গণধর্ষণ

|

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

রাজবাড়ীতে দীর্ঘ দিন প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভনে ডেকে এনে এস,এস,সি পরীক্ষার্থীকে গণ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। গত সোমবার (২৮ জানুয়ারী) বিকেল ৪টার দিকে জেলা শহরের ড্রাই আইচ ফ্যাক্টারী এলাকায় আমিরুর ইসলামের পরিত্যাক্ত এক মেসে এ ঘটনা ঘটে।

পরে নির্যাতিত ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে ঘটনায় জরিত ৬ জনকে আসামি করে গণ ধর্ষণের মামলা করে। এঘটনায় পুলিশ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো,জেলা সদরের ভবানীপুর গ্রামের ইউনুস সেখের ছেলে সুজন (২২),আক্তার ফকিরের ছেলে আলামিন (২৪),নারু কুমার সরকারের ছেলে আকাশ (২৪),আবুল ব্যাপারীর ছেলে বাবু(২৮),বড় লক্ষীপুর গ্রামের খালেক প্রামাণিকের ছেলে ফজলু(৩২)। অপর আসামি মোস্তফা পলাতক রয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, তিন মাস আগে বিনোদপুর ড্রাই আইচ ফ্যাক্টরী এলাকার সুজনের সাথে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ঘটনার দিন সোমবার বিয়ের ব্যাপারে কথা বলবে জানিয়ে সুজন ড্রাই আইচ ফ্যাক্টরী এলাকার আমিরুল ইসলামের পরিত্যক্ত মেসের সামনে নিয়ে যায়। এরপর সুজন তার মায়ের সাথে বিয়ের প্রসঙ্গে কথা বলবে বলে তার বন্ধুদের কাছে রেখে চলে যায়। সুজনের বন্ধুরা ওই ছাত্রীকে পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ করে।

রাজবাড়ী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার জানান, এ ঘটনায় ওই ছাত্রী ৬ জনকে আসামি করে সোমবার রাতে মামলা করে। পুলিশ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে। আরেক আসামি মোস্তফাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ছাত্রীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য সদর হাপাতালে পাঠানো হয়েছে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply