প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পরও সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসক-নার্স অনুপস্থিত

|

চিকিৎসক-আর নার্সদের দায়িত্ব ভালোভাবে পালনে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পরদিনই, দেশের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে দেখা গেছে সেই পুরনো চিত্রই।

সকাল ৯টার মধ্যে চিকিৎসকদের উপস্থিত থাকার কথা সিরাজগঞ্জের বেলকুচি ৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে। এখানে ১৩ জন চিকিৎসকের বদলে পাওয়া যায় মাত্র ৩ জনকে। চৌহালি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সকাল ১০ টা পর্যন্ত পাওয়া গেছে মাত্র একজন চিকিৎসককে। কামারখন্দেও ৯ জনের পরিবর্তে ছিলেন মাত্র ২ জন। খাবার সরবরাহ ও ওষুধ সংকটের অভিযোগও করছেন রোগী ও স্বজনরা।

নওগাঁর বদলগাছি উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নির্দিষ্ট সময়ে উপস্থিত হননি চিকিৎসকরা। ৩ জন দায়িত্বে থাকার কথা থাকলেও আছেন ২ জন।

বরিশালে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও অনিয়মের চিত্র দেখা গেছে। সকাল থেকে রোগীর দীর্ঘলাইন থাকলেও চিকিৎসকরা দেরিতে যান কর্মস্থলে।

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৫ জন চিকিৎসক থাকার কথা, সেখানে রয়েছেন ৫ জন, দাবি কর্তৃপক্ষের। তবে সকালে ৩ জনকে পাওয়া যায়। নেই আবাসিক চিকিৎসকও।









Leave a reply