নতুন করে ২৫০ রোহিঙ্গাকে জোরপূর্বক বাংলাদেশে ফেরত পাঠাচ্ছে সৌদি আরব

|

নতুন করে আরও ২৫০ রোহিঙ্গা নাগরিককে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর পরিকল্পনা করছে সৌদি আরব। চলতি জানুয়ারি মাসেই তাদের ফেরত পাঠানো হবে বলে জানা গেছে।

এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো রোহিঙ্গা নাগরিকদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করে এমন একটি সংস্থার বরাত দিয়ে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ সংস্থা আলজাজিরা জানিয়েছে, দ্বিতীয়বারের মতো আড়াইশ রোহিঙ্গা নাগরিককে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাবে সৌদি সরকার।

জানা গেছে, সৌদি আরবে প্রায় তিন লাখ রোহিঙ্গা বসবাস করেন। রোহিঙ্গা নাগরিক হয়েও বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে তারা সেখানে বসবাস করছেন। ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করেও অনেক রোহিঙ্গা দেশটিতে বসবাস করছেন।

এসব রোহিঙ্গার মধ্যে অনেকে সৌদি আরবের শুমাইসি বন্দিশিবিরে আটক রয়েছেন।

তাদের মধ্যে থেকে গত ৭ জানুয়ারি ১‌৩ রোহিঙ্গাকে ঢাকায় ফেরত পাঠিয়েছিল রিয়াদ। এবার সেখান থেকে আরও ২৫০ রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে।

অবশ্য বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়া ঠেকাতে বন্দিশালায় রোহিঙ্গা বন্দিরা অনশন করছেন। পাশাপাশি তারা জাতিসংঘের হস্তক্ষেপও চেয়েছেন রোহিঙ্গা বন্দিরা।

ফ্রি রোহিঙ্গা কোয়ালিশনের ক্যাম্পেইন কো-অর্ডিনেটর নে সান লুইন বলেন, এসব রোহিঙ্গা ঢাকায় ফেরার পর কারাবাসের মুখোমুখি হতে পারে। তবে আমরা সৌদি কর্তৃপক্ষকে তাদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া বন্ধ রাখার দাবি জানাচ্ছি।









Leave a reply