জঙ্গিনেতা রিজওয়ান হারুন গ্রেফতার

|

জঙ্গিনেতা রিজওয়ান হারুনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তাকে শনিবার দিবাগত ভোর ৬টার দিকে ধানমন্ডি ৬-এর ঈদগাহ মসজিদের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রিজওয়ানের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা রয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, রিজওয়ান হারুনের প্রত্যক্ষ মদদে বাংলাদেশে সর্বপ্রথম আল-কায়দার মতাদর্শী জঙ্গি সংগঠন জামাতুল মুসলিমিন (জেএম) প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর প্রায় ১৭টি দেশে এ সংগঠনের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, রিজওয়ানসহ সংগঠনের সদস্যরা ঢাকা শহরে বিভিন্ন বাসা, মসজিদ এবং হারুন ইঞ্জিনিয়ারিং এর নিজস্ব অফিসকে দাওয়া-হালাকা কার্যক্রমের জন্য ব্যবহার করতো।

‘প্রচলিত ইমামের পেছনে জুম্মার নামাজসহ অন্যান্য নামাজ আদায় করা যাবে না। যারা জামাতুল মুসলিমিনের এর বায়াত গ্রহণ করবেন না তারা সবাই কাফের।’ হালাকায় এসব বিষয় বয়ান করা হতো বলে গোয়েন্দা পুলিশ জানিয়েছে।

অভিযোগ আছে, ইমিগ্রেশনের চোখ ফাঁকি দিয়ে গত ২০১৭ সালের মে মাসে দেশে ফিরেই আত্মগোপনে ছিল জঙ্গি নেতা রিজওয়ান হারুন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে সে মোস্ট ওয়ান্টেড ছিল। ঢাকায় এসে গোপনে কর্মী সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করে রিজওয়ান।

ডিএমপির বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, জামাতুল মুসলিমিনের সকল সদস্য জঙ্গি কার্যক্রম দ্রুত বিস্তারের জন্য বিভিন্ন ধরনের ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল ও অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে। এদের মধ্যে লেকহেড গ্রামার স্কুল ও কিউকেশিন কারাতে স্কুল অন্যতম।









Leave a reply