হাতের মুঠোয় পুরে রাখতে পারবেন স্মার্টফোন!

|

একটা সময় ছিল, যখন কোমরে বাঁধা থাকত মোবাইল ফোন। কারণ পকেটে সেভাবে জায়গা হতো না। সে সময়ের মোবাইল ফোনগুলো দেখতে ছিলো অনেকটা ওয়াকিটকি’র মত। এক ইঞ্চি লম্বা এন্টেনাসহ বিশাল ‘গামা সাইজ’ যাকে বলে। সময়ের পরিক্রমায় ছোট আকৃতির মোবাইল ফোন বাজারজাত শুরু করলো নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। বাজারে এলো স্লিম ফোন যা অনায়াসে হাতের মুঠোয় এটে যেতো। স্মার্টফোনের আবির্ভাবে হঠাৎ যেন ফিরে এলো সেই ‘গামা সাইজ’র ফোন। যার জনপ্রিয়তা এখনও তুঙ্গে। স্মার্টফোন যুগের আগে অন্যতম আকর্ষণীয় ফোন ছিল ফোল্ডিং ফোন। এই তো সেদিন, টিসিএল, মোটোরোলা, সিমেন্স ও স্যামসাং এর ফোল্ডিং মোবাইলগুলো ছিল ক্রেতাদের পছন্দের শীর্ষে ।

সে কথা মাথায় রেখেই কিনা এখন স্মার্টফোনেও ফোল্ডিং ডিজাইন আনার চেষ্টায় রয়েছে মোবাইল নির্মাতা কোম্পানিগুলো। এটি একেবারেই নতুন ধারণা না হলেও ভাবনা দারুণ সাড়া ফেলে দিয়েছে ক্রেতাদের কাছে। বলা হচ্ছে, আগামী বছর হবে ফোল্ডিং স্মার্টফোনের জয়জয়কার। স্যামসাং, অ্যাপল, নকিয়া, জেডটিই, লেনোভোর মতো প্রতিষ্ঠান ফোল্ডিং স্মার্টফোন তৈরির আগ্রহ দেখিয়েছে।

পিছিয়ে নেই হুয়াওয়ে’ও। চীনের অন্যতম প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি, ফোল্ডিং স্মার্টফোন তৈরিতে কোমর বেঁধে নেমেছে। সম্প্রতি প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট সিনেটকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপ’র সিইও রিচার্ড ইয়ু ফোল্ডিং স্মার্টফোন তৈরির কথা জানিয়েছেন। বলেছেন, হুয়াওয়ে ফোল্ডিং স্মার্টফোনের প্রোটোটাইপ তৈরিতে কাজ শুরু করেছে। আগামী বছর নাগাদ এ ফোন বাজারে দেখা যেতে পারে। আরেক বৃহৎ প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং’ও ফোল্ডিং স্মার্টফোন বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছে।

প্রোটোটাইপ তৈরি হলেও এখনই বাজারে আসছে না ফোল্ডিং স্মার্টফোন। রিচার্ড ইয়ু জানান, তারা এমন স্মার্টফোন তৈরির চেষ্টা করছেন যেটিতে দুটি স্ক্রিন। সমস্যা হলো এই দুটি স্ক্রিনের মধ্যে সামান্য ফাঁক থেকে যাচ্ছে। কিভাবে ওই ফাঁক বন্ধ করার করা যায় সে চেষ্টাই চালিয়ে যাচ্ছেন তাদের প্রযুক্তিবিদরা। আগামী বছরের মধ্যেই এ সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করছে হুয়াওয়ে।

আগামী বছরেই যে গ্যালাক্সি সিরিজের নতুন সংযোজন হিসাবে ফোল্ডিং স্যামসাং স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার পরিকল্পনা করছে স্যামসাং কর্তৃপক্ষ, সে খবর মাস খানেক আগের। সহজে বাঁকানো যায়, এমন ডিসপ্লেই ব্যবহার করবে স্যামসাং।  যথারীতি নতুন ধাঁচের এই স্মার্টফোন তৈরিতে তাদেরও কারিগরি সমস্যার মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

বলা হচ্ছে, এই বছরের সবচেয়ে আলোচিত ট্রেন্ড বেজেল বিহীন স্মার্টফোন যেখানে ফোনের পুরো ফ্রেমজুড়ে থাকছে স্ক্রীন। প্রযুক্তিবিদরা মনে করছে, ফোল্ডিং স্মার্টফোন বাজারে এলে তা স্মার্টফোনের প্রচলিত নকশায় বড় ধরনের প্রভাব ফেলবে। আগামীদিনের স্মার্ট ফোন হবে এমন যা নিমেষেই ভাঁজ করে হাতের মুঠোয় পুরে রাখা যায়।

(আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম অবলম্বনে মহিউদ্দিন মধু)

যমুনা অনলাইন: এমএম/টিএফ









Leave a reply