‘নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে আসাটা বড় চ্যালেঞ্জ’

|

সাবেক নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সাথে সংলাপ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সভায় সাবেক সিইসি’রা বলেন, আগামী নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে আসাটা কমিশনের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। সাবেক সিইসি শামসুল হুদা বলেন, ‘সুষ্ঠু নির্বাচন করার দায়িত্ব শুধু নির্বাচন কমিশনের একার নয়। রাজনৈতিক দলগুলোরও নির্বাচন সুষ্ঠু করার ক্ষেত্রে দায়িত্ব আছে।’  আর সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের স্বার্থে দরকার পড়লে সেনা মোতায়েন করার কথা জানিয়েছে কমিশন।

আজ মঙ্গলবার, সংলাপের সূচনা বক্তব্যে সাবেক সিইসিদের উপস্থিতি  নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন সিইসি কে এম নুরুল হুদা। এই সংলাপ থেকে প্রাপ্ত পরামর্শগুলো কাজে লাগাবেন বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘সাবেক সিইসি, নির্বাচন কমিশনারদের পেয়ে খুবই ভালো লাগছে। আপনাদের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাবো। আজ বিচিত্র অভিজ্ঞতার গল্প শুনতে চাই। এসব গল্প পরামর্শ আকারে গ্রহণ করবো। যত্ন সহকারে তা সংরক্ষণ করবো এবং প্রয়োগ করবো।’

বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সুশীল সমাজ ও নির্বাচন বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের ধারাবাহিক সংলাপের শেষ দিনে আজ অনুষ্ঠিত হয়েছে এই সংলাপ। এতে নির্বাচন বিশেষজ্ঞ হিসেবে ২৬ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও উপস্থিত আছেন ১৬ জন।

সাবেক সিইসি মোহাম্মদ আব্দুর রউফ ও এ টি এম শামসুল হুদা ছাড়াও সংলাপে সাবেক নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে মুহাম্মদ ছহুল হোসাইন, এম সাখাওয়াত হোসেন, মোহাম্মদ আবদুল মোবারক, আবু হাফিজ, মো. শাহনেওয়াজ, সাবেক সচিব আবদুল করিম, মনজুর হোসেন, হুমায়ুন কবীরসহ  স্বরাষ্ট্র, জনপ্রশাসন, স্থানীয় সরকার, পুলিশ ও মন্ত্রণালয়ের কয়েকজন সাবেক শীর্ষ কর্মকর্তা অংশ নিয়েছেন।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply