গণতন্ত্র ও উন্নয়নের ধারা রক্ষায় মহাজোটকে বেছে নিয়েছে মানুষ

|

গণতন্ত্র ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটকে বেছে নিয়েছে দেশের মানুষ। মাদক, দুর্নীতি ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্সে নীতি বজায় থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকালে গণভবনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব একথা বলেন।

গণভবনে ১১টি দেশের নির্বাচন পর্যবেক্ষক দল ও ৩৯ গণমাধ্যম প্রতিনিধির মুখোমুখি হন প্রধানমন্ত্রী। এসময় বাংলাদেশে শান্তিপূর্ণ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের বিষয়ে বিদেশি পর্যবেক্ষক ও গণমাধ্যম কর্মীদের মতামত ও অভিজ্ঞতা জানতে চান। জবাব দেন, নিজ দলের নিরঙ্কুশ জয় ও প্রতিপক্ষের ভরাডুবির বিভিন্ন প্রশ্নের।

টানা দু’মেয়াদে উন্নয়নের সুফল ভোগ করায় জনগণ নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে বিপুল ভোটে জয়ী করেছে বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিচক্ষণতার বিচারে জনগণই আমার বিচারক। দেশ পরিচালনায় নেতৃত্ব ও যোগ্যতার বিচার করেই জনগণ এই রায় দিয়েছে।

ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যানের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মনোনয়ন বাণিজ্যের কারণে তাদের অনেক জয় প্রত্যাশী প্রার্থী থাকা সত্বেও তাদের মনোনয়ন দেয়া হয়নি।

শেখ হাসিনা বলেন, ভোটকারচুপির যে কয়টি ঘটনা ঘটেছে, সবক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ বাতিল করেছে। ৪০ হাজার কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয় ২২টি কেন্দ্রের ভোট।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী জানান, পরাজিতরা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলেও সফল হবে না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

এর আগে সকালে, আওয়ামী লীগের নেতা ও সামরিক-বেসামরিক ব্যক্তিত্বরা হ্যাট্রিক জয়ের জন্য গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানান। এসময় তিনি বলেন, বিজয়ের মাসে নির্বাচনে আরেকটি বিজয় এসেছে।

 









Leave a reply