মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৬০০ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করলো ফেসবুক

|

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সাথে সংশ্লিষ্ট প্রায় ৬০০ অ্যাকাউন্ট ও পেজ বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। বার্মিজ সেনাবাহিনীর সাথে গোপন যোগসাজশের অভিযোগ এনে এসব অ্যাকাউন্ট ও পেজ বন্ধ করা হয়।

বুধবার এক বিবৃতিতে এসব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয় ফেসবুক। এবার নিয়ে তৃতীয়বারের মতো মিয়ানমারে এ ধরণের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করলো ফেসবুক। এর আগে গত আগস্ট ও অক্টোবরেও রোহিঙ্গাবিরোধী বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে অনেক অ্যাকাউন্ট ও পেজ ডিলিট করে দেয়া হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত বছরের আগস্টে রাখাইনে গণহত্যার উদ্দেশ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর সেনাবাহিনীর পরিকল্পিত অভিযানের কয়েক বছর আগেই এসব অ্যাকাউন্ট খোলা হয়। এরপর ব্যাপক ও ঢালাও ব্যবহারের মাধ্যমে হিংসা ও বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্যসহ মিথ্যা ও ভুয়া তথ্য ছড়িয়ে বিষাক্ত পরিবেশ তৈরি করা হয় এসব অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে।

ফেসবুক জানিয়েছে, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৪২৫টি পেজ, ১৭টি গ্রুপ, ১৩৫টি অ্যাকাউন্ট এবং ১৫টি ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আপাতদৃষ্টিতে এগুলো ছিল খবর, বিনোদন, রূপচর্চা ও লাইফস্টাইলভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম।

বাস্তবে এসব পেজের মাধ্যমে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বিরামহীনভাবে বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্য ও গুজব ছড়ানো হয়েছে। এর সঙ্গে সেনাবাহিনীর যোগসাজশ রয়েছে। এর মধ্যে এমন পেজ ও অ্যাকাউন্ট রয়েছে যা ইতিপূর্বে বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। তবে পুরনো ও একই নামে নতুন করে খোলা হয় বেশ কিছু অ্যাকাউন্ট।

প্রসঙ্গত, মিয়ানমারের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও প্রভাবশালী সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম হল ফেসবুক। অভিযোগ রয়েছে সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় এ মাধ্যমটি ব্যবহার করে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সাধারণ বৌদ্ধদের চরম উসকানি দেয়া হয়। এবং রোহিঙ্গাদের উপর পরিচালিত গণহত্যায় সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রেখেছে এই ফেসবুকই।









Leave a reply