ডুয়াল স্ক্রিন ফোল্ডিং স্মার্টফোন!

|

মোবাইল ফোনের ডিজাইনে নতুন আর কি মাত্রা যোগ করা যায়, তা নিয়ে গবেষণার অন্ত নেই এক্সপার্টদের। শুরু হয়েছে বেজেলবিহীন ফুলস্ক্রিন স্মার্টফোনের ট্রেন্ড। ফোনের দৈর্ঘ্য প্রস্থের অনুপাতও পাল্টে যাচ্ছে। সেই প্রতিযোগিতায় এবার চাইনিজ মোবাইল ফোন কোম্পানি জেডটিই আনলো অভিনব এক ফোন।

অ্যাক্সন এম মডেলের ফোনটিকে বলা হয় ফ্লিপ বা ফোল্ডিং স্মার্টফোন; অর্থাৎ এটি ভাঁজ করে রাখা যায়। তবে তার মানে এই না যে স্ক্রিনই ভাজ করে ফেলা যাবে। সেটা প্রযুক্তি আসতে এখনও কিছুটা দেরি। অ্যাক্সন এম মূলত জোড়া লাগানো দুই স্ক্রিনের ফোন।

ফোনটি যখন ভাঁজ করা থাকে, তখন এর দুদিকেই ডিসপ্লে। খোলা অবস্থায় দুটো মিলিয়ে ডিসপ্লের দৈর্ঘ্য দাড়ায় পৌণে ৭ ইঞ্চি। কিন্তু ডিসপ্লে দুটির মাঝে থাকা বেজেলের কারণে ঠিক মনে হয় না যে একটা স্ক্রিনই দেখছি।

ফুল হাই ডেফিনিশন রেজুল্যুশনের স্ক্রিন দুটির আকার ৫.২ ইঞ্চি। স্ক্রিন দুটিকে নানাভাবে ব্যবহার করা যায়। ডুয়াল মোডে থাকলে, দুটি স্ক্রিন আলাদা ভাবে কাজ করবে, দেখা যাবে আলাদা অ্যাপস। এক্সটেন্ডেড মোডে কাজ করা যাবে পৌণে ৭ ইঞ্চি স্ক্রিন জুড়ে। মিরর মোডে দুটি স্ক্রিনে একই দৃশ্য ভেসে উঠবে। এর ফলে আপনি মোবাইলে যা দেখছেন, আপনার উল্টো দিকে থাকা বন্ধুরাও তা দেখতে পাবেন। সবশেষে আছে ট্র্যাডিশনাল মোড, অর্থাৎ শুধু একটা স্ক্রিনই কাজ করবে।

অভিনব এই ফোনটির ভেতরে রয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮২১ চিপসেট। আছে ৪ গিগাবাইট র‍্যাম আর ৬৪ গিগাবাইট স্টোরেজ। ফোল্ডিং ফোন হওয়ার কারণে এতে ক্যামেরা আছে মাত্র একটি। সেটি অবশ্য ২০ মেগাপিক্সেলের। দুটি ডিসপ্লের শক্তি যোগাতে আছে ৩১৮০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। শুরু থেকে অ্যাক্সন এম চলবে অ্যান্ড্রয়েড নৌগাট ৭.১.২ ভার্সনে।

আগামি মাসেই ফোনটি বাজারে আসছে। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে এটির দাম ধরা হয়েছে ৭২৫ ডলার।









Leave a reply