নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্যকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

|

দুর্নীতির অভিযোগে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য শামসুর রহমানের বিচার ও পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। অভিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত উপাচার্যকে বিশ্ববিদ্যালয়ে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছে তারা।

আজ সকালে দুর্নীতির বিরুদ্ধে কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ব্যানারে পৃথক পৃথক কর্মসূচী পালন করে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। বেলা বারোটায় দুর্নীতির বিরুদ্ধে কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের ব্যানারে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ভাবনের সামনে মানববন্ধন করে। মানববন্ধন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ভিসির দ্রুত অপসারণ দাবি ও তাকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়।

এর আগে, বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল দুর্নীতির বিচার দাবি করে প্রশাসনিক ভবনের সামনে পৃথক মানববন্ধন করে শিক্ষক সমিতি। শুধু ভারপ্রাপ্ত ভিসি নয়, দুর্নীতির সাথে জড়িত সকলকে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়।

এদিকে, ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য শামসুর রহমানের দুর্নীতির বিরুদ্ধে গণমাধ্যমে কথা বলায় নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষক রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে কারণ দর্শানো নোটিশ প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

যমুনা অনলাইন: এইচএস/টিএফ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply