ঝিনাইদহে এক নৌকা ভক্তের নৌকা তৈরির গল্প

|

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র কাঠের নৌকা তৈরিতে ব্যস্ত আবু সাইদ নামের এক ব্যক্তি। পেশায় একজন কাঠের আসবাব তৈরির কারিগর হলেও নির্বাচন এলেই আসবাবপত্র ছেড়ে নৌকা তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন সাইদ। তিনি আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের কাছে আকার বুঝে নামমাত্র মূল্যে নৌকা বিক্রি করেন।

জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলা শহরের বনবিভাগ পাড়ার মৃত মনিরুল ইসলামে ছেলে আবু সাইদ স্বেচ্ছাসেবক লীগের ৩নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক। সংগঠনের প্রতি ভালবাসা থেকেই নির্বাচন এলেই নৌকা তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে ওঠেন। বাজার থেকে কাঠ কিনে নিজের পরিশ্রমে তৈরি নৌকা নামমাত্র মূল্যে নেতা কর্মীদের কাছে বিক্রি করেন। এরই মধ্যে অর্ধশত নৌকা তৈরি করেছেন। এছাড়াও জেলা, উপজেলার ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড নেতা কর্মীদের বিভিন্ন সাইজের নৌকার অর্ডার রয়েছে।

নৌকার কারিগর আবু সাইদ জানান, “দীর্ঘ ২০ বছর কাঠের আসবাবপত্র তৈরির কাজ করছেন। আওয়ামী লীগের প্রতি ভালোবাসা-ভালো লাগা থেকে প্রথমে একটি নৌকা তৈরি করি। নৌকাটি কোটচাঁদপুর উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের অফিসে দেই। এরপর থেকেই নৌকা ভক্তদের নিকট নৌকা তৈরির বিষয়টি প্রচার হতে থাকে। সেই থেকে বাড়তে থাকে নৌকা তৈরির কাজ। নির্বাচন এলেই নৌকার কর্মী ভক্তদের মধ্যে নৌকার চাহিদা বেড়ে যায়। এরই মধ্যে অর্ধশত নৌকা তৈরির কাজ শেষ করে এনেছেন।

তিনি আরো বলেন, এক সময় জাতীয় নির্বাচনেই শুধু নৌকা প্রতীক ব্যবহার করা হত। তখন নৌকার চাহিদা কম ছিল। কিন্তু এখন জাতীয়, উপজেলা এবং ইউনিয়ন পরিষদেও নৌকা প্রতীকে নির্বাচনের কারণে নৌকার চাহিদা বেড়ে গেছে। একই সাথে নৌকা তৈরির কাজও বেড়েছে কয়েক গুন।

সদর উপজেলার গান্না ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মেম্বর রিপন হোসেন বলেন, ঘনিষ্ঠ একজনের মাধ্যমে জানতে পারলাম আবু সাইদ নামের একজন কোটচাঁদপুরে খাদ্য গুদামের কাছে নৌকা তৈরি করছেন। পরে তার কাছ থেকে একটি কাঠের, উপরে ছাউনি দেয়া নৌকা কোন রকম দাম দিয়ে কিনে এনেছি।

এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম বলেন, পেশায় কাঠের মিস্ত্রী হওয়ার পরও দলকে ভালবেসে তিনি যে কাজটি করছেন, সেজন্য ব্যক্তিগতভাবে এবং দলের পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানাই। তার এমন উদ্যোগ অবশ্যই দল মূল্যায়ন করবে ও তার পাশে থাকবে।









Leave a reply