পাবনায় প্রার্থিতা আছে ৩১ জনের,  ৮ জনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার

|

পাবনা প্রতিনিধি

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষদিন রোববার (০৯ ডিসেম্বর) পাবনার ৫টি সংসদীয় আসনে ৮ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। তাদের মধ্যে পাবনা-১ আসনে তিনজন, পাবনা-২ আসনে দুইজন, পাবনা-৪ আসনে একজন এবং পাবনা-৫ আসনে দুইজন প্রার্থী রয়েছেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাফিউল ইসলাম জানান, পাবনায় যে ৮ জন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন তারা হলেন-পাবনা-১ আসনে আবুল বাসেত খান (স্বতন্ত্র), নজরুল ইসলাম (ওয়ার্কাস পার্টি), ডা. শফিকুল ইসলাম (বাংলাদেশ মুসলিম লীগ)। পাবনা-২ আসনে শাখাওয়াত হোসেন (এনপিপি), রেজাউর রহিম (জাসদ)। পাবনা-৪ আসনে আবু তালেব মন্ডল (স্বতন্ত্র) এবং পাবনা-৫ আসনে জাকির হোসেন (ওয়ার্কাস পার্টি), মামুনার রশিদ (বিএনপি)। এদিকে, পাবনা-৩ আসনে কোনো প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার হয়নি। অপরদিকে পাবনা-১ আসনে নিজামী পুত্র ব্যরিষ্টার নাজিবুর রহমান (স্বতন্ত্র) তার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি।

উল্লেখ্য, পাবনার ৫টি আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন মোট ৪২ জন প্রার্থী। এর মধ্যে বাছাইয়ে বাতিল করা হয় ৪ জনের মনোনয়ন। আপিলে ফিরে পান একজন। আর প্রত্যাহার করেন ৮ জন। এখন থাকলেন মোট ৩১ জন প্রার্থী। তারা হলেন-

পাবনা-১ আসনে শামসুল হক টুকু (আওয়ামী লীগ), অধ্যাপক আবু সাইয়িদ (জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট), সরদার শাহজাহান (জাতীয় পার্টি), ব্যারিষ্টার নাজিবুর রহমান (স্বতন্ত্র, জামায়াত), আব্দুল মতিন (ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ), শরিফুল ইসলাম (তরিকত ফেডারেশন), জুলহাস নাইন (গণসংহতি আন্দোলন), শাখাওয়াত হোসেন (এনপিপি)।

পাবনা- ২ আসনে আহমেদ ফিরোজ কবীর (আওয়ামী লীগ), সেলিম রেজা হাবিব (বিএনপি), হাসান জাফির তুহিন (বিএনপি), আব্দুল হালিম সাজ্জাদ (বিএনপি), ইউনুস আলী (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ), শামসুর রহমান (বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন)।

পাবনা-৩ আসনে আলহাজ্ব মকবুল হোসেন (আওয়ামীলীগ), কে এম আনোয়ারুল ইসলাম (বিএনপি), হাসাদুল ইসলাম হীরা (বিএনপি), ফখরুল আজম রনি (বিএনপি), আব্দুল মোতালেব (ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ), খায়রুল আলম (গণতন্ত্রী পার্টি)।

পাবনা-৪ আসনে শামসুর রহমান শরীফ ডিলু (আওয়ামীলীগ), হাবিবুর রহমান হাবিব (বিএনপি), সিরাজুল ইসলাম সরদার (বিএনপি), আব্দুল জলিল (ইসলামি আন্দোলন), আব্দুর রশিদ শেখ (এনপিপি)।

পাবনা-৫ আসনে গোলাম ফারুক প্রিন্স (আওয়ামীলীগ), অ্যাডভোকেট শামছুর রহমান শিমুল বিশ্বাস (বিএনপি), অধ্যক্ষ ইকবাল হুসাইন (স্বতন্ত্র, জামায়াত), আরিফ বিল্লাহ (ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ), আব্দুল কদর খান (জাতীয় পার্টি), আবু দাউদ (এনপিপি)।









Leave a reply