পর্যবেক্ষকদের জন্য নির্বাচন পেছানোর দাবি অযৌক্তিক: ওবায়দুল কাদের

|

বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য নির্বাচনের তারিখ পেছানোর দাবি অযৌক্তিক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ সকালে ধানমন্ডিস্থ দলটির সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এসময় ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, নির্বাচন পেছানোর দাবি যদি কমিশন মেনে নেয়। তাহলে আমাদের আপত্তি নেই।

তিনি বলেন, মনোনয়নপত্র যারা নিয়েছেন তাদের সাক্ষাৎকার আগামীকাল অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়ন বোর্ড তাদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করবেন। বোর্ডের সভাপতি হিসেবে থাকবেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি যেটা ভালো মনে করবেন সেটাই করবেন। সাক্ষাৎকারের পর সন্ধ্যায় মনোনয়ন প্রক্রিয়া শুরু হবে।

মনোনয়নপত্র আর নেয়ার সুযোগ নেই উল্লেখ করে কাদের বলেন, অনেকে জমা দিতে পারেনি। তারা জমা দিতে পারবেন।

বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের সমালোচনা করে তিনি বলেন, যদি তাদেরকে তিনশ আসনে জেতার নিশ্চয়তা ইসি দিতে পারে তবে সেই ইসি তাদের চোখে হবে শ্রেষ্ঠ ইসি। এছাড়া তারা সন্তুষ্ট হবে না। এটা তাদের পুরনো অভ্যাস। আ স ম আবদুর রব তিনি জাসদের একটা অংশের নেতা। তিনি এখন বিএনপির ধারায় মিশে গেছেন। বিএনপির ধারায় কথা বলছেন।

নির্বাচন করতে কোনো প্রার্থীকে উৎসাহিত করা হয়নি জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সাকিব নির্বাচন করতে চেয়েছে। কিন্তু শেখ হাসিনা মনে করেন দলের চেয়ে দেশ বড়। তাই তিনি সাকিবকে বুঝিয়েছেন। অভিনেতা ফেরদৌস নির্বাচন করতে চেয়েছে। এ বিষয়েও নেত্রীর সাথে আলাপ করেছি। এখানে হয়তো পারব না। তাকেও অহেতুক অনিশ্চয়তায়য় ফেলতে চাই না। গতকাল তাকে না করে দিয়েছি।

মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে সময় লাগবে জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, আরো ৪/৫ দিন সময় লাগবে। ১৭ নভেম্বরের মধ্যে শেষ করার পরিকল্পনা ছিলো। তবে সময় যেহেতু পাওয়া গেছে, আরেকটু সময় নিবো। তবে মনোনয়ন পেলেই জিতে গেছি, এটা মনে করার সুযোগ নাই।

নিজ দলের মনোনয়ন ঠিক করার পরই শরীক দলের সাথে আসন ভাগাভাগিতে যাবেন বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।









Leave a reply