‘নির্বাচনে ইভিএম জোর করে চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে’

|

এবারের সংসদ নির্বাচনে ইভিএম জোর করে চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে। সাধারণ মানুষকে প্রশিক্ষিত না করেই তাড়াহুড়ো করে ভোটিং মেশিন ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বিপুল অর্থ ব্যয় করে এসব মেশিন কেনা হচ্ছে কার স্বার্থে। এসব কথা বলেছেন নির্বাচন বিশ্লেষকরা।

রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে জাতীয় নির্বাচন নিয়ে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন আয়োজিত আজ এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তারা।

এসময় সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার এটিএম শামসুল হুদা বলেছেন, সব দল ইভিএম না চাইলে তা এবারের নির্বাচনে ব্যবহার ঠিক হবে না। ইভিএম কেনার দায়িত্ব প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হচ্ছে যেটি আশঙ্কার বিষয় বলে মনে করেন সাবেক সিইসি।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এম হাফিজউদ্দিন খান বলেন, সাধারণ মানুষকে প্রশিক্ষিত না করেই তাড়াহুড়ো করে ইভিএম চাপিয়ে দেওয়া উচিত না।

সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার বলেছেন, ৩৮শ কোটি টাকা খরচ করে কার স্বার্থে ইভিএম কেনা হচ্ছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply