নাইকো দুর্নীতি মামলার পরবর্তী শুনানি ১৪ নভেম্বর

|

খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে বিশেষ জজ আদালতে নাইকো দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি শেষ; পরবর্তী শুনানি ১৪ নভেম্বর। পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে অস্থায়ীভাবে স্থাপিত ঢাকার ৯ নম্বর বিশেষ জজ মাহমুদুল কবীরের আদালতে এই শুনানি হয়।

খালেদা জিয়া ছাড়া নাইকো মামলার অন্য আসামীদের মধ্যে আছেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী।

কানাডীয় প্রতিষ্ঠান নাইকোর সঙ্গে অস্বচ্ছ চুক্তির মাধ্যমে রাষ্ট্রের প্রায় ১৩ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি সাধনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে ২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় মামলাটি করে দুদক। মামলার অভিযোগপত্রে প্রায় ১৩ হাজার ৭৭৭ কোটি টাকার রাষ্ট্রীয় ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়।

পরের বছরের ৫ মে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। আসামীপক্ষ বৈধতা চ্যালেঞ্জ করলে ৯ জুলাই মামলাটি স্থগিত করেন হাইকোর্ট। ২০১৫ সালের ১৮ জুন হাইকোর্ট রুল নিষ্পত্তির সাথে সাথে খালেদা জিয়াকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

২০১৫’র ডিসেম্বরে আত্মসমর্পণ করে জামিন পান খালেদা জিয়া। নাইকো দুর্নীতি মামলাটির পরবর্তী কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিশেষ জজ আদালত ৯, বুধবার এক আদেশে পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। মামলাটির অভিযোগ গঠনের জন্য আজ দিন ধার্য করেছিলেন বিচারক মাহমুদুল কবির।









Leave a reply