গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় উপজেলা চেয়ারম্যান জেলহাজতে

|

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

গৃহবধূ ধর্ষণের মামলায় বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সাবেক বিএনপি নেতা হারুনুর রশিদকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন আদালত। আলোচিত এই মামলায় সোমবার হাজির হলে আদালত তাকে জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি হারুনুর রশিদের (৪৮) বিরুদ্ধে চার সন্তানের এক জননীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে।

ঐদিন বেলা আড়াইটার দিকে নিজের কার্যালয়ের দুই তলায় সেলাই মেশিন দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করা হয় বলে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিলেন নির্যাতিত মহিলা। পরে মহিলা বাদি হয়ে বিশ্বম্ভরপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

সোমবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেনের আদালতে চেয়ারম্যান হারুন জামিনের আবেদন করেন। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি অ্যাড. খায়রুল কবীর রুমেন উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন রশিদের জামিন নামঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।









Leave a reply