এবার সৌদি কর্তৃপক্ষই স্বীকার করলো খাশোগি হত্যা পরিকল্পিত ছিল

|

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ড পূর্ব-পরিকল্পিত বলে স্বীকার করেছে সৌদি আরবের পাবলিক প্রসিকিউটর। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে একথা বলা হয়েছে।

সৌদির টিভি চ্যানেল আল-আখবারিয়া জানায়, খাশোগি হত্যাকাণ্ডের তদন্তের জন্য গঠিত সৌদি আরব ও তুরস্কের যৌথ টাস্কফোর্স সূত্রে জানা গেছে, এই হত্যাকাণ্ডকে পূর্ব পরিকল্পিত বলেছেন সৌদি পাবলিক প্রসিকিউটর।

প্রসিকিউটররা সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে বলেও জানায় চ্যানেলটি।

তুর্কি বাগদত্তার সাথে বিয়ের প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র আনতে গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর নিখোঁজ হন ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার কলাম লেখক ও স্বেচ্ছা-নির্বাসিত সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি। শুরুতে অস্বীকার করলেও ১৯ অক্টোবর সৌদি জানায়, তুরস্কের ইস্তাম্বুল কসন্যুলেটে গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে খাশোগির মৃত্যু হয়। এর দুদিন পরই খাসোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলেও স্বীকার করেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সৌদি আরবের দাবি, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গোয়েন্দা সংস্থার উপ-প্রধান এবং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দেহরক্ষিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। গ্রেপ্তার করা হয়েছে মোট ১৮ জনকে।

তবে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম বলছে, খাশোগির খুনের পেছনে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানই কলকাঠি নেড়েছেন। মঙ্গলবার তুর্কি সংসদে দেয়া ভাষণেও হত্যার পেছনে থাকা ব্যক্তিদের চিহ্নিত করতে আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানান তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান। তবে যুবরাজ জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছে সৌদি আরব।









Leave a reply