আবার ক্ষমতায় এলে বিমানবাহিনীকে আরো আধুনিক করার পরিকল্পনা আছে: প্রধানমন্ত্রী

|

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ কারো সঙ্গে যুদ্ধ চায়না। কিন্তু আঘাত এলে দেশকে শত্রুমুক্ত করতে সর্বোচ্চ প্রস্তুতি থাকতে হবে। আজ বৃহস্পতিবার যশোরে বিমানবাহিনী একাডেমীতে এ কথা বলেন তিনি। এসময় তিনি আরো বলেন, নির্বাচনে জিতে আবার ক্ষমতায় এলে বাহিনীকে আরও আধুনিক ও চৌকস করার পরিকল্পনা আছে।

১৯৭৪ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিমান বাহিনী একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। সেই স্মৃতিকে স্মরণ করে রাখতে ৭ই মার্চের ভাষণের আদলে ৪৩ ফুট উঁচু জাতির পিতার আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করা হয় বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান বিমান বাহিনী একাডেমিতে। দুপুরে এই একাডেমি উদ্বোধন করতে এলে প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীকে সালাম জানায় বিমান বাহিনীর চৌকস দল। পরে প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে আয়োজন ছিল ফ্লাইপাস্টের।

প্রধানমন্ত্রী বিমান বাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশ্য বলেন, স্থল, জল ও আকাশ পথে সদা জাগ্রত এই মন্ত্রকে সামনে রেখেই বিমান বাহিনীর উন্নয় করে যাচ্ছে সরকার৷ গত ১০ বছরে করে তার সরকারের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরেন শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানস্থল থেকে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চট্টগ্রামে বিমান বাহিনী ঘাঁটি জহুরুল হক এ বিমান সেনা প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। একই সাথে মাল্টিরোল যুদ্ধ বিমান পরিচালনায় দক্ষ বৈমানিক গড়তে ১০৫ এজেটিইউ এর কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা।









Leave a reply