মেহেরপুরে হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

|

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার বেতবাড়িয়া গ্রামের আনোয়ার হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। আজ বুধবার সকালে মেহেরপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ গাজী রহমান এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো ২ মাস করে কারাদণ্ডাদেশের আদেশ দেওয়া হয়েছে। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- গাংনী উপজেলার বেতবাড়িয়া গ্রামের বদর উদ্দিনের ছেলে ফজলুল হক, নুর বকসের ছেলে সালেহীন, খয়ের বকসের ছেলে খুশালী, মজিবুর রহমানের ছেলে হাসানুজ্জামান ও এলাহী বকসের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক। মামলায় অন্য ৪ আসামিকে বেকুসর খালাস দেওয়া হয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, বেতবাড়িয়া গ্রামের ইসাহাক ও পচা গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন ১৯৯৫ সালের ১১ মে ঈদের নামায শেষে বাড়ি ফেরার পথে পচা গ্রুপের আব্দুল গেজালের ছেলে মিনাল হোসেনকে আটকিয়ে রাখে প্রতিপক্ষরা। এ ঘটনা জানতে পেরে তাকে ছাড়াতে যায় ইসাহাক গ্রুপের লোকজন। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে পচার ছেলে আনোয়ার হোসেন কে বল্লম দিয়ে আঘাত করলে সে মারা যায়। ওই দিনই নিহতের পিতা পচা গাংনী থানায় ২১ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রাথমিক তদন্ত শেষে ৯ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। মামলায় ১৭ জন সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করেন। সাক্ষীদের সাক্ষ্য ও নথি পর্যালোচনা করে বিচারক অভিযুক্ত আসামিদের মধ্যে ৫ জনকে যাবজ্জীবন এবং বাকী ৪ জনকে বেকসুর খালাস দেন। মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন পাবলিক প্রসিকিউটর পল্লব ভট্রাচার্য এবং আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন এ্যাড. শহিদুল ইসলাম।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply