খাশোগিকে হত্যার পরিকল্পনা কয়েকদিন আগে থেকে করা হয়: এরদোগান

|

তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান দেশটির পার্লামেন্টে ভাষণ দিচ্ছেন। খাশোগি হত্যার বিষয়ে তুরস্কের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর করা তদন্তের প্রাথমিক ফলাফল প্রকাশ করবেন তিনি।

বক্তব্যে এরদোগান বলেন, জামাল খাশোগিকে খুবই বর্বর কায়দায় হত্যা করা হয়। তার হত্যার পরিকল্পনা করা হয় কয়েকদিন আগে থেকে। তিনি আরও জানান, ২ অক্টোবর খাশোগি সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের দিন রিয়াদ থেকে খুনিদের দুইটি টিম ইস্তাম্বুলে পৌঁছায়। কিন্তু তার আগের দিন পৌঁছায় তিন সদস্যের আলাদা আরেকটি টিম। যেই টিমের সদস্যরা কনস্যুলেটের আশপাশের এলাকা রেকি করে যায়। এছাড়া ইস্তাম্বুল ও ইয়ালোভা অঞ্চলের দুটি জঙ্গল এলাকায়ও গিয়েছিল তারা।

এরদোগান জানান, খাশোগি পৌঁছার আগেই সৌদি কনস্যুলেটের সিসি ক্যামেরাগুলো সরিয়ে ফেলা হয়। খাশোগি ওই দিন তার ডিভোর্স সংক্রান্ত কাগজপত্র নিতে আসবেন যা আগেই নির্ধারিত ছিল। এই সুযোগে বিশেষ বিমানে হত্যাকারীদেরকে ইস্তাম্বুলে আনা হয়। তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, সৌদি আরব যে ১৮ জনকে গ্রেফতার করেছে তাদের মধ্যে ডেথ স্কোয়াডের ১৫ সদস্য ছাড়াও কনস্যুলেটের ৩ কর্মী রয়েছে। ঘটনার পরপরই এই ১৮ জন দ্রুত তুরস্ক ত্যাগ করে।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, খাশোগি দুঘর্টনা বা অনিচ্ছাকৃতভাবে হত্যার শিকার হননি, বরং তাকে হত্যার জন্য কয়েকদিন আগে থেকেই পরিকল্পনা করা হয়।

ঘটনা তদন্তে সৌদি কর্তৃপক্ষের সহায়তা চেয়ে এরদোগান বলেন, আমাদের অনেক প্রশ্নের জবাব পেতে হবে। ওই ডেথ স্কোয়াডকে কে নির্দেশ দিয়েছিল? হত্যার পর সপ্তাহের বেশি সময় ধরে কেন কনস্যুলেটে তদন্তকারীদের ঢুকতে দেয়া হয়নি? কেন বারবার সৌদি কর্তৃপক্ষ পরস্পরবিরোধী বক্তব্য দিচ্ছে? নিহতের লাশ কোথায়?


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply