এবার পরীক্ষা বাতিল চাইলেন সাদা দলের শিক্ষকরা

|

প্রশ্নফাঁসের অভিযোগ ওঠায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা বাতিল করার দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত সাদা দলের শিক্ষকরা। আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট প্রদানের আগেই ফলাফল প্রকাশের ঘটনায় আমরা তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানাচ্ছি। গত তিন বছর ধরে ‘ঘ’ ইউনিটের প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। আমরা আশা করেছিলাম, কর্তৃপক্ষ এবার অভিযোগের সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য তদন্ত সম্পন্ন করে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। কিন্তু এবারো আমরা কর্তৃপক্ষের দায় এড়ানোর প্রবণতা দেখলাম। সর্বমহলের সমালোচনার পরিপেক্ষিতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হলেও কমিটির রিপোর্ট পাওয়ার আগেই ফলাফল প্রকাশ করা হলো। এ ফলাফল কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।

শিক্ষকরা আরো বলেন, প্রকাশিত ফলাফলে প্রশ্নপত্র ফাঁসের স্বপক্ষে প্রমাণাদি ইতোমধ্যে গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। আমরা মনে করি ভর্তি পরীক্ষায় স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা কেবল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ও ঐতিহ্য রক্ষার জন্যই প্রয়োজন নয়। এর সাথে হাজার হাজার শিক্ষার্থীর স্বপ্ন ও ভবিষ্যৎ জড়িত। তাই অবিলম্বে বিতর্কিত ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল বাতিল করে নতুন করে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ এবং একই সাথে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র ফাঁসের সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার জোর দাবি জানাচ্ছি।

বিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেন সংগঠনটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান, অধ্যাপক ড. মোঃ মোর্শেদ হাসান খান, সাবেক আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. সদরুল আমিন, অধ্যাপক ড. মো. সিরাজুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মোঃ আখতার হোসেন খান, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান, অধ্যাপক ড. মো. আবুল কালাম সরকার, অধ্যাপক মো. আতাউর রহমান বিশ্বাস প্রমুখ।









Leave a reply