আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে স্তব্ধ সবাই

|

আজ সকালে সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চু। তার এই চলে যাওয়াকে মেনে নিতে পারেননি তার সংগীত অঙ্গনের সহকমরঈ থেকে ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীরা। অনেকে এই সংগীত কিংবদন্তির মৃত্যুতে শোকাহত হয়ে তাদের ফেসবুকে লিখেছেন। পাঠকদের জন্য তা তুলে ধরা হলো।

লেখক আনিসুল হক তার ফেসবুকে লিখেন, বাচ্চু ভাইয়ের বেশির ভাগ গান আমার মুখস্থ। কারণ, তিনি প্রথম আলোর মাদক বিরোধী কনসার্টে নিয়মিত গাইতেন। আমাকেও তার সঙ্গে সঙ্গে টুর দিতে হতো। তিনি ছিলেন গিটারের মাস্টার। মনে আছে, একটা প্রথম আলোর একটা কনসার্টে খুব বেশি ভিড় হয়েছিল। বাচ্চু ভাই ছিলেন শেষ আর্টিস্ট। আমি বললাম, বাচ্চু ভাই, এমনভাবে শেষ করেন যেন সবাই শান্তভাবে ঘরে ফিরে যায়। বাচ্চু ভাই গিটার বাজাতে শুরু করলেন। প্রায় আধাঘন্টা হাজার হাজার দর্শক মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে চুপটি করে দাঁড়িয়ে রইল। তারপর তিনি আমার সোনার বাংলার সুর তুললেন। সেটা শুনে দর্শকেরা বাধ্য ছেলের মতো একে একে বিদায় নিল। কোনো অঘটন আর ঘটল না।আহা, আমাদের আইয়ুব বাচ্চু ভাই। তার ব্যবহার ছিল গুড়ের মতো মিষ্টি। এত ভালো একটা মানুষ। আমি বোধ হয় একমাত্র তারই পায়ে হাত দিয়ে কদমবুসি করেছিলাম এই ঢাকা শহরে।

সংগীত শিল্পী শাফিন আহমেদ বলেন, তার রুহের মাগফিরাত কামনা করছি, আইয়ুব বাচ্চু তার সংগীতের মাধ্যেমে লক্ষ লক্ষ মানুষের হৃদয় ছুঁয়েছন, আমি খুবই দুঃখিত।

প্রযোজক সানি সানোয়ার বলেন, আইয়ুব বাচ্চু মানেই আমাদের কৈশোর-যৌবন। প্রেমের হাতেখড়ি, আবেগের মূর্ছনা আর বন্ধুদের আড্ডাজুড়ে ছিল বাচ্চু ভাইয়ের গান। তিনি হয়তো চলে গেছেন, তবে তার গান হাজার বছর ধরে প্রোথিত হয়ে থাকবে আমাদের মনে মনে। বাচ্চু ভাইয়ের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি।

বাংলাদেশের খেলোয়ার মুশফিকুর রহিম বলেন, দুঃখ সংবাদ দিয়ে দিনের শুরু। আল্লাহ তার রুহের শান্তি প্রদান করুন।

বাংলাদেশের আরেক ক্রিকেটার রুবেল হোসেন লিখেন, সত্যি মানতে পারছি না, আমি ছোটবেলা থেকেই জেমস ভাই বাচ্চু ভাই এদের গান শুনি. আমি বাচ্চু ভাইয়ের বিশাল বড় একজন ফ্যান সেদিনও টিভিতে তার কনসার্ট দেখছিলাম. আল্লাহ এটা কি হয়ে গেল আসলে সবাইকে চলে যেতে হবে একদিন এটাই বাস্তবতা তার জন্য সবাই দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন প্রিয় শিল্পী কে বেহেশত নসীব করেন আমিন ।

ওয়ারফেজের লিড ভোকালিস্ট পলাশ নুর লিখেন, বিশ্বাস হচ্ছে না ভাই আপনি আর নেই!!!! যে আদরে বুকে টেনে নিতেন তা কখনো কেউ করেনি ভাই!!! ভালো থাকুন ওপারে ।

গায়িকা পড়শি তার ফেসবুকে আইয়ুব বাচ্চুর ছবি দিয়ে লিখেন, ভালো থাকবেন স্যার।

রক সঙ্গীতশিল্পী তিশমা লিখেন, বাচ্চু ভাই আমাকে বিদায় না বলে কিভাবে আমাকে ছেড়ে চলে গেলেন?, কেউ আমাকে বলো এ কথাটা মিথ্যা, আমি বাকরুদ্ধ, শোকাহত।

মিনার লিখেছেন, আমরা আপনাকে মিস করবো। স্যার আপনার রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।

আরেক শিল্পী মিলা তার ফেসবুক পেজে লিখেন, আল্লাহ, সবাই কেনো এভাবে চলে যাচ্ছে, যারা এতোদিন এতো মানুষকে সংগীতের মাধ্যেমে এতো এতো বছর একটু শান্তি ও সুখ দিয়ে আসছে আর যারা চলে যাচ্ছে তাদের আল্লাহ ঐ হাজার মানুষের দোয়ার কারণে ভালো রাখুক, অনেক শান্তিতে রাখুক। ভালো থাকবেন আমার গুরু।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply