জাতিসংঘে মার্কিন দূত হিসেবে ইভাঙ্কাকে চেয়েছিলেন ট্রাম্প

|

স্বজনপ্রীতির অভিযোগ ওঠার সম্ভাবনা থাকায় যোগ্য হওয়ার পরও জাতিসংঘে মার্কিন দূত হিসেবে নিজের কন্যা ইভাঙ্কাকে নিয়োগ দেননি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মঙ্গলবার নিকি হ্যালির পদত্যাগের পর তার জায়গায় ইভাঙ্কাকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে নিয়োগ দেয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন ট্রাম্প।

তিনি বলেন, আমি মনে করি ইভাঙ্কা অনেক যোগ্য হবে। তার মানে এই না, আমি তাকে ঠিক করে ফেলেছি। সেটি হলে আপনারা আমার বিরুদ্ধে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ করতেন। আমি শিউর নই যে, তার চেয়ে যোগ্য পৃথিবীতে কেউ আছে কিনা।

এদিকে, এক টুইটার বার্তায় ওই পদে বসার সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন ইভাঙ্কা ট্রাম্প। তিনি বলেন, এটা নি:সন্দেহে অনেক গর্বের। আমি জানি যে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সদ্য বিদায়ী রাষ্ট্রদূত হ্যালির জায়গায় একজন দুর্দান্ত কাউকে বসাবেন। তবে সেটা আমি নই।









Leave a reply