বিএনপির ৭ দফা দাবি তুলে ধরলেন মির্জা ফখরুল

|

খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার সহ ৭ দফা দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব। আজ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত বিএনপি সমাবেশে মির্জা ফখরুল বলেন, দাবি আদায়ে নেতা কর্মীদের রাজপথে নামার আহবান জানান তিনি।

পাশাপাশি ৩ অক্টোবর জেলায় জেলায় ও ৪ অক্টোবর মহানগরে সমাবেশ করবে বিএনপি। নেতারা বলেন, রাজপথ দখল করতে না পারলে লক্ষ্য অর্জন সম্ভব নয়।

চেয়ারপার্সন কারাগারে তবু তাকেই প্রধান অতিথি করে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশ। নেতাকর্মী সবার দাবি খালেদা জিয়ার মুক্তি।

সমাবেশ শুরু দুপুর ২টায়। তবে সকাল থেকেই মিছিলে নিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জড়ো হতে থাকেন নেতা কর্মীরা। দুপুর গড়ালে জনসমুদ্রে পরিণত হয় পুরো এলাকা। বিএনপি নেতারা বলেন, জাতীয় ঐক্য ও ভোটের মাধ্যমে আবারো প্রধানমন্ত্রী হবেন খালেদা জিয়া।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্র বাঁচাতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। ইভিএম বাতিল, নির্বাচন কমিশন পূনর্গঠন ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার সহ সাত দফা দাবি তুলে ধরেন তিনি।

দাবিগুলোর মধ্যে আরও রয়েছে-

•নির্বাচনের সময় একটি নিরপেক্ষ সরকার থাকতে হবে

•সংসদ ভেঙ্গে দিতে হবে

•নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে

•ম্যাজিস্টেসি ক্ষমতা দিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে

•ইভিএম পদ্ধতি বাতিল করতে হবে বা চালু করা যাবে না

সমাবেশে বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদ বলেন, ‘আমাদের এর অতিরিক্ত দাবি বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সেই সঙ্গে হাজার হাজার যে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং যারা কারাগারে রয়েছে, সেই সব রাজবন্দীর মুক্তি চাই। সেই সঙ্গে নির্বাচনের সময় নতুন করে যেন আর মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের আর গ্রেপ্তার করা না হয়। কারণ বেগম জিয়ার মুক্তি ছাড়া একটি সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয় বলে আমরা মনে করি।









Leave a reply