৫ বছর ধরে লকারে মৃত সন্তানকে লুকিয়ে রাখেন মা

|

জাপানের টোকিওর উগুইসুদানি রেলস্টেশনের লকারে নিজের শিশুকে বছরের পর বছর ধরে রাখার দায়ে ইমিরি সুজাকি (৪৯) নামে এক মহিলাকে আটক করেছে পুলিশ।

ইমিরি পুলিশকে জানিয়েছে, শিশুটির জন্মদানের সময়ে তিনি স্বাভাবিক ছিলো না। আর যখন স্বাভাবিক হোন তখন থেকে সে শিশুটিকে লকারে রেখে আসে, যা ৪ থেকে ৫ বছর হবে।

ওই মহিলা লকারের ভাড়া নিয়মিত দিতেন এবং গত ১৩ সেপ্টেম্বর শিশুটিকে এক লকার থেকে অন্য লকারে রাখেন। পুলিশ গত ২৪ সেপ্টেম্বর শিশুটিকে খুঁজে পায়। খবর দ্য জাপান টাইমস রিপোর্ট।

পুলিশ জানায়, রেলস্টেশনের ওই লকার ভিতরে প্লাস্টিকে জড়ানো অবস্থায় রাখা রয়েছে কতগুলো মানুষের হাড়গোড়। মরদেহ সংরক্ষণের কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে ইমিরি। বেকার থাকার পরও লকার ব্যবহারের জন্য প্রতিদিন ১ দশমিক ৮০ ডলার সমমূ্ল্যের ভাড়া পরিশোধ করতেন তিনি।

পুলিশকে ইমিরি বলেন, একটি জীবিত শিশু জন্ম দিতে না পেরে আমি বিপর্যস্ত হয়ে পড়ি। তাই মরদেহটি সংরক্ষণ করি। আমি কিছুতেই এটির সৎকার করতে দিতে পারিনি। শিশুটির দেহ রেখে ৫ বছর ধরে নিয়মিত লকারের ভাড়া পরিশোধ করছিলেন শিশুটির মা ইমিরি সুজাকি। ৪৯ বয়সী এই নারী ৫ বছর আগে মৃত শিশুটির জন্ম দিয়েছিলেন।

জাপানের রেলস্টেশনগুলোতে লকার ভাড়া নিতে পারেন যে কেউ। দরজায় কয়েন ঢুকালেই ভাড়া নেয়া শুরু হয়ে যায়।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply