ব্যভিচার আর অপরাধ নয়!

|

ব্যভিচার বা পরকীয়া অপরাধ নয় বলে ঐতিহাসিক রায় দিয়েছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। তারা বলছেন, এটি এখন থেকে ফৌজদারি বা শাস্তিমূলক অপরাধ নয়। একই সঙ্গে এ সংক্রান্ত ৪৯৭ ধারা অসাংবিধানিক বলেও ঘোষণা করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার এ রায় ঘোষণার সময় প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বলেন, কোনো মহিলা তার স্বামীর সম্পত্তি নয়। সভ্য সমাজে কোনো আইন ব্যক্তির মর্যাদা খর্ব করতে পারে না।

১৮৬০ সালে ৪৯৭ ধারা সংবিধানে সংযুক্ত করা হয়। ওই আইনে বলা হয়, কোনো ব্যক্তি কোনো বিবাহিত মহিলার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করলে এবং এতে ওই মহিলার স্বামীর অনুমতি না থাকলে, পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল এবং জরিমানা বা উভয়ই হতে পারে। তবে এক্ষেত্রে মহিলা দোষী সাব্যস্ত হবেন না।

এই আইনকে চ্যালেঞ্জ করে চলতি বছরের গোড়ার দিকে একটি রিট করা হয়। রিটকারীর দাবি ছিলো, ঔপনিবেশিক শাসনকালে পুরুষদের সম্পত্তি হিসাবে গণ্য করা হত মহিলাদের। তার ভিত্তিতেই প্রণীত হয়েছিল এই আইন। কিন্তু বর্তমান সমাজ ব্যবস্থার প্রেক্ষিতে এই আইন পরিবর্তন করা হোক। একই অপরাধে পুরুষকে দোষী করলে মহিলাদেরও দোষী করতে হবে। ওই রিটের প্রেক্ষিতে এই রায় দেন আদালত।

যমুনা অনলাইন: এফএম





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply