‘আগামী বছরও শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় দেখার প্রত্যাশা রাষ্ট্র-সংস্থা প্রধানদের’

|

নিবার্চনে সব দলের অংশগ্রহণ দেখতে চায় এস্তোনিয়ার প্রেসিডেন্ট ও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা। একইসাথে, বাংলাদেশের উন্নয়নের স্বার্থে ক্ষমতায় শেখ হাসিনাকেই দেখতে চান তারা। স্থানীয় সময় বুধবার, নিউইয়র্কে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান পররাষ্ট্র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক। একইদিন, ভিন্ন অনুষ্ঠানে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ঠেকাতে, প্যারিস জলবায়ু চুক্তি কার্যকরের উদ্যোগ নিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার জাতিসংঘের ৭৩তম সাধারণ অধিবেশনের সাইডলাইনে আন্তর্জাতিক বেশ কয়েকটি সংস্থা’র মুখপাত্র এবং এস্তোনিয়ার প্রেসিডেন্টের সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ইউএনএইচসিআর (UNHCR)-এর হাইকমিশনার ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি, ইইউ’র পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রধান ফেদেরিকা মোঘেরিনি, এস্তোনিয়ার প্রেসিডেন্ট কারস্টি কালজুলায়েদ, ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনেরিট্টা ফোরে এবং মিয়ানমারে জাতিসংঘের বিশেষ দূত ক্রিস্টিন শ্রানের বার্গনারের সাথে আলাদা আলাদা বৈঠকে আলোচনার মূল বিষয়বস্তু ছিলো আসন্ন নির্বাচন এবং রোহিঙ্গা সংকট।

এরপরই এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক জানান, আসন্ন নির্বাচন অবাধ-সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক হবে- এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো। তার দাবি, আগামী বছরও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনাকে দেখার প্রত্যাশা তাদের।

তিনি বলেন, বিভিন্ন রাষ্ট্র, সরকার ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রধানেরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে, বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও উন্নয়ন উভয়ই একযোগে চলবে। তারা ভবিষ্যতেও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফোরামে শেখ হাসিনার সঙ্গে পুনরায় দেখা হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

একইদিন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব ঠেকাতে ‘প্যারিস জলবায়ু চুক্তি’ কার্যকরের উদ্যোগ নিতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রযুক্তিগত সহায়তা চেয়েছেন কৃষি, স্বাস্থ্য ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায়। আগামী ডিসেম্বরে পোল্যান্ডে হতে যাওয়া কপ-টোয়েন্টি ফোর সম্মেলন সামনে রেখে এ বৈঠকের আয়োজন করেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply