ব্যর্থতার ধারাবাহিকতায় টপ অর্ডার

|

কোনোভাবেই যেন থিতু হতে পারছে না বাংলাদেশের টপ অর্ডার। এশিয়া কাপ জুড়েই ব্যর্থতার বৃত্তে আটকে থাকা টর্প অর্ডার একই ধারাবাহিকতা বজায় রাখলো পাকিস্তানের বিপক্ষে অলিখিত সেমিফাইনালেও।

প্রথম ম্যাচে তামিমের ইনজুরির পর নানাজনকে দিয়ে নানাভাবেই তো চেষ্টা করা হলো। ফলাফল সেই একই। আজ যেমন লিটন দাসের সাথে ওপেন করতে নামলেন দীর্ঘদিন পর দলে সুযোগ পাওয়া সৌম্য সরকার। একপ্রান্তে লিটনকে যখন সপ্রতিভ মনে হচ্ছিল তখন বড্ড তাড়াহুড়োই যেন পেয়ে বসলো সৌম্যকে। ম্যাচের তৃতীয় ওভারে পাক পেসার জুনায়েদ খানের লাফিয়ে ওঠা বল সীমানা ছাড়া করার জন্য তুলে মারলেন। বলটি অর্ধেক মাঠও পার হলো না।

ফখর জামানের হাতে তালুবন্দী হয়ে শূন্য রানেই ফিরে গেলেন সৌম্য। এরপর মুমিনুল হক নেমে এক ওভারও টিকতে পারলেন না। দারুণ এক ইনসুইঙ্গারে তার স্ট্যাপ উপড়ে ফেললেন শাহীন আফ্রিদি। পরের ওভারে আবার লিটন দাসের স্ট্যাম্প উপড়ে ফেললেন জুনায়েদ খান। ৪.২ ওভারে মাত্র ১২ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ।

সৌম্য, মুমিনুল সুযোগ হেলায় হারালেন। অন্যদিকে, আমিরের বদলে সুযোগ পেয়ে কী দারুণভাবেই না দলে থাকার দাবিটা জোরালো করলেন জুনায়েদ খান!

যমুনা অনলাইন: টিএফ


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply